বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

কিছু শব্দের মাধ্যমে তিনি অসহনীয় যন্ত্রণা তুলে ধরেছেন। পাশাপাশি অশ্বিনী তাঁর স্বামীর ভক্তদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন, যাঁরা পুনিতের পথে হেঁটে নিজেদের চক্ষু দান করছেন। ইনস্টাগ্রাম পোস্টে পুনিতের স্ত্রী লিখেছেন, ‘পুনিত রাজকুমারের অকালমৃত্যুতে শুধু তার পরিবার নয়, পুরো কর্ণাটক রাজ্য গভীরভাবে শোকার্ত। আমি কল্পনা করতে পারছি না যে এই অপূরণীয় ক্ষতি কতশত মানুষকে ক্ষতবিক্ষত করেছে। আপনারা সব অনুরাগী ওকে “পাওয়ার স্টার” বানিয়েছেন। এত কষ্ট পাওয়া সত্ত্বেও আপনারা মনের জোর হারাননি। কোনো অপ্রিয় ঘটনা ঘটতে দেননি। আর তাই পুনিত কুমারের এক সম্মানজনক বিদায় হয়েছে।’

তিনি আরও লিখেছেন, ‘আমি ভারাক্রান্ত মন নিয়ে শুধু সিনেমাপ্রেমীদের নয়, ভারত ও বিদেশের লাখ লাখ মানুষের সমবেদনা গ্রহণ করছি। হাজার হাজার মানুষ অপ্পুকে অনুসরণ করে চক্ষুদানের জন্য নাম নথিবদ্ধ করাচ্ছেন দেখে আমার চোখে পানি চলে আসে।’

default-image

মাত্র ৪৬ বছর বয়সে মারা গেছেন পুনিত। এই মহাতারকাকে অন্তিম বিদায় জানাতে এসেছিলেন ১০ লাখের বেশি মানুষ।

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন