default-image

‘জানে তু ইয়া জানে না’ সিনেমার সেই অদিতি, জেনেলিয়া ডি সুজা এখন দুই সন্তানের মা। বলিউড তারকা, অভিনয়শিল্পী, স্ত্রী সব ছাপিয়ে ‘মা’ পরিচয়টাই তাঁর কাছে এখন মুখ্য। এ কথা জানিয়েছেন তিনি নিজেই। ২০১২ সালে রিতেশ দেশমুখকে বিয়ে করে বিদায় জানিয়েছিলেন বড় পর্দাকে। তবে টিকটকে তিনি আছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভিডিও, ছবিসহ মজার মজার সব পোস্ট দিয়ে সক্রিয় থাকেন জেনেলিয়া।

বিজ্ঞাপন
default-image

জেনেলিয়ার দুই ছেলে রিহান আর রাহুল ভালো স্কেটিং করে। সন্তানদের সঙ্গে স্কেটিং করবেন বলে শিখছিলেন মা জেনেলিয়াও। সেসব ভিডিও করে রেখেছেন অনুপ্রেরণামূলক কাজ হিসেবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করার জন্য। সেই ভিডিওতেই দেখা গেল, উল্টে পড়ে হাত ভেঙেছেন তিনি। ভিডিওটি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘ভাবলাম, সবাইকে বলব, ‘‘দেখো, আমি কত সহজে শিখে ফেললাম। আমিও পারি। এখন আপনারা দেখুন, উড়তে গিয়ে স্বপ্ন উল্টে পড়তে পারে। তবে পড়ে গেলেই ফুরিয়ে যাবেন না। নতুন শক্তিতে জ্বলে উঠবেন। তখনো আপনি হাসবেন, সেরে উঠবেন আর উঠে দাঁড়িয়ে ঝাঁপিয়ে পড়বেন স্বপ্ন সত্যি করতে’’।’ আরেকটি ভিডিও পোস্ট করেছেন ৩৩ বছর বয়সী জেনেলিয়া। সেখানে দেখা যাচ্ছে, রিতেশ দেশমুখ তাঁর চুল বেঁধে দিচ্ছেন। আর বেজে চলেছে পিঙ্ক সুইটসের ‘অ্যাট মাই ওর্স্ট, আই নিড সামবডি হু ক্যান লাভ মি অ্যাট মাই ওর্স্ট’। সে কথা মনে করিয়ে মজাচ্ছলে ভিডিওতে তিনি বলেছেন, ‘হাত ভেঙে গেলে স্বামীকে দিয়ে চুল বাঁধিয়ে নিতে ভুলবেন না যেন।’

default-image

সম্প্রতি একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে জেনেলিয়ার। ভাঙা হাত সেরে উঠতেই রিতেশকে নিয়ে গিয়েছিলেন বলিউডের এক পার্টিতে। সেখানে দীর্ঘদিন পর তাঁর দেখা হয় আরেক বলিউড তারকা প্রীতি জিনতার সঙ্গে। প্রীতিকে জড়িয়ে ধরেছিলেন রিতেশ। এটা নিয়েও জেনেলিয়া বানিয়েছেন আরেকটি মজার ভিডিও।

জেনেলিয়াকে শেষবার দেখা গেছে ২০২০ সালের নভেম্বর মাসে একটি ওয়েব প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পাওয়া ‘ইটস মাই লাইফ’ সিনেমায়।

বিজ্ঞাপন
বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন