দেড় বছরের একাকিত্ব ঘুচিয়ে নতুন ভালোবাসাকে বরণ করলেন বলিউড তারকা দিয়া মির্জা। করোনাকালের নতুন স্বাভাবিকতায় গত ১৫ ফেব্রুয়ারি ভারতীয় ব্যবসায়ী বৈভব রেখিকে বিয়ে করেন তিনি। দুজনেরই দ্বিতীয় বিয়ে এটি। বিয়ের পর সবকিছু গুছিয়ে মধুচন্দ্রিমায় গেছেন এই জুটি, সঙ্গে বৈভবের প্রথম স্ত্রীর মেয়ে সামায়রা!

default-image

সমুদ্রের পাড়ে আকাশি, হালকা নীল ও সাদা রঙের পোশাকে একের পর এক ছবি পোস্ট করছেন দিয়া। একটি ছবিতে দিয়ার সঙ্গে ধূসর জাম্পস্যুটে দেখা গেল সামায়রাকেও। বাবার বিয়েতেও উপস্থিত ছিল সে, বরণ করে নিয়েছে নতুন মাকে। বৈভবের সাবেক স্ত্রী সুনয়না জানিয়েছেন, দিয়ার সঙ্গে বৈভবের বিয়েতে তিনি খুশি। বৈভব আর সুনয়নার মেয়ে সামায়রাকে আপন করে নিয়েছেন দিয়া। এমনকি তাঁকে সঙ্গে নিয়ে মালদ্বীপে মধুচন্দ্রিমায় গিয়ে রীতিমতো নজির স্থাপন করলেন দিয়া। আর এজন্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বেশ প্রশংসা কুড়াচ্ছেন এই অভিনেত্রী।

default-image
বিজ্ঞাপন

২০০০ সালে মিস এশিয়া প্যাসিফিক ইন্টারন্যাশনাল হয়ে বলিউডে পা রেখেছিলেন দিয়া। অভিনয় দিয়ে কেড়েছিলেন দর্শকের নজর। তবে জ্বলে উঠতে পারেননি। বলিউডে বলাবলি হতো, দিয়া রূপবতী, মেধাবী আর পরিশ্রমী হওয়া সত্ত্বেও বলিউডে জায়গা করে নিতে পারলেন না। শুরুতে সাড়া ফেললেও সময়ের সঙ্গে সঙ্গে অনেকটাই ফ্যাকাশে হয়ে পড়েছিলেন তিনি। ২০১৪ সালে ব্যবসায়িক অংশীদার সাহিল সংঘকে বিয়ে করেছিলেন দিয়া। পাঁচ বছরের মাথায় হলো ছন্দপতন। ২০১৯ সালের আগস্টে বিচ্ছেদের ঘোষণা দেন দিয়া ও সাহিল।

default-image

২০২০ সালে অনুভব সিনহা পরিচালিত থাপ্পড় ছবিতে তাপসী পান্নুর সঙ্গে শেষবার পর্দায় দেখা গিয়েছিল দিয়াকে। এর আগে ২০১৮ সালে মুক্তি পাওয়া সঞ্জু ছবিতে অভিনয় করেছিলেন তিনি। সিনেমার পাশাপাশি ওয়েব সিরিজেও কাজ করেছেন। আক্কিনেনি নাগার্জুনার সঙ্গে তেলেগু ছবি ওয়াইল্ড ডগ-এ দেখা যাবে তাঁকে।

default-image
বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন