এরপরই ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা যায় অক্ষয়ভক্তদের। ক্ষতিকারক পণ্যের হয়ে প্রচার করছেন তাঁদের প্রিয় অভিনেতা, এই ভেবে অক্ষয়ভক্তরা অভিনেতার ওপর রুষ্ট হয়েছিলেন। এমনকি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এই তারকার পুরোনো ভিডিও ভাইরাল করে, যেখানে মাদকদ্রব্য, তামাকজাত দ্রব্যের প্রচার থেকে অভিনেতা নিজেকে দূরে সরিয়ে রাখার কথা বলেছেন।

default-image

বুধবার মধ্যরাতে টুইটে ক্ষমা প্রার্থনা করে অভিনেতা লিখেন, ‘আমি দুঃখিত। আমি আমার ভক্ত ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের কাছে ক্ষমা চাচ্ছি। গত কয়েক দিনে আপনাদের প্রতিক্রিয়া আমাকে গভীরভাবে প্রভাবিত করেছে। আমি তামাকজাত পণ্যের বিজ্ঞাপন কখনো করিনি এবং ভবিষ্যতেও করব না। বিমল এলাইচির সঙ্গে আমার যুক্ত হওয়ার কারণে আপনাদের ভাবাবেগকে আহত করেছে জেনে আমি দুঃখিত। নম্রতার সঙ্গে আমি পিছিয়ে এলাম। আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি, বিজ্ঞাপন থেকে প্রাপ্ত টাকা আমি ভালো কাজে দান করব। বিজ্ঞাপন সংস্থা ওই বিজ্ঞাপনের প্রচার চালিয়ে যেতে পারে যত দিন পর্যন্ত আইনিভাবে আমি তাঁদের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ রয়েছি। কিন্তু আমি কথা দিচ্ছি ভবিষ্যতে আমি সতর্ক থাকব নিজের সিদ্ধান্তগুলো নিয়ে। পরিবর্তে, আমি শুধু আপনাদের ভালোবাসা আর শুভেচ্ছা চাই।’

ভারতীয় গণমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস অজয় দেবগনের কাছে অনুরূপ প্রতিক্রিয়া সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এটি ব্যক্তিগত পছন্দ। আপনি যখন কিছু করেন, তখন আপনি এটাও দেখেন যে এটি কতটা ক্ষতিকর। হয়তো কিছু ক্ষতিকর আবার কিছু ক্ষতিকর না। আমি যা অনুভব করি, তা বিজ্ঞাপনের চেয়ে বেশি, যদি কিছু জিনিস খুব ক্ষতিকর হয়, তাহলে সেগুলো বিক্রি করা উচিত নয়।’

default-image

উল্লেখ্য, এই মুহূর্তে আগামী ছবিগুলোর কাজে অত্যন্ত ব্যস্ত রয়েছেন অক্ষয়। বক্স অফিসে অক্ষয় কুমারের শেষ ছবি ছিল ‘বচ্চন পান্ডে’। মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে ‘পৃথ্বীরাজ’, ‘রাম সেতু’, ‘রক্ষা বন্ধন’, ‘সেলফি’র মতো ছবি।

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন