বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

হারনাজকে করা হয়েছে প্রেমবিষয়ক প্রশ্ন। তাঁর কাছে জানতে চাওয়া হয়, ধনী কোনো প্রভাবশালী ব্যক্তি নাকি সংগ্রাম করছেন, এমন কাউকে প্রেমিক হিসেবে চান? জবাবে হারনাজ বলেন, ‘আমি ধনী আর প্রভাবশালী ব্যক্তির বদলে কঠিন পরিশ্রম করছে, এমন যুবকের সঙ্গে প্রেম করতে বেশি পছন্দ করব। কারণ, আমিও সংগ্রাম করে আসছি। আর আগামী দিনেও আমাকে সংগ্রাম করতে হবে। আমি মনে করি, জীবনে সংগ্রাম জরুরি। তাহলেই আমরা পরস্পরকে সম্মান করতে পারব।’

default-image

সঙ্গীর আর কী কী গুণ থাকতে হবে? এ ব্যাপারে হারনাজ বলেছেন, ‘সবার আগে তাকে আমার ভালো বন্ধু হয়ে উঠতে হবে। বিয়ের পর কখনোই যেন মনে না হয় যে আপনি ফেঁসে গেছেন। তাই সঙ্গী এমন হওয়া উচিত, যার সঙ্গে স্বচ্ছন্দ বোধ করবেন। কারণ, এটা সারা জীবনের বিষয়। আর আমার আবেগকে সে যেন অনুভব করতে পারে। আমি যদি ক্যারিয়ারে তার চেয়ে এগিয়ে যাই, তার মনে যেন হিংসা না জন্মায়। একটা বিয়ে তখনই সফল হয়, যখন স্বামী-স্ত্রী একে অপরকে সমান চোখে দেখে। আর তারা একে অপরের প্রতি দায়িত্ব আর অধিকারবোধ উপলব্ধি করতে পারে। তবে এখনই সঙ্গীর বিষয়ে আমার বলার সময় হয়নি।’

default-image

কিছুদিন আগে হারনাজ জানিয়েছিলেন যে তিনি বলিউডের অংশ হয়ে উঠতে চান। আর হিন্দি ছবির দুনিয়ায় পা রাখার সময় অভিনয়শিল্পীদের হরহামেশাই কাস্টিং কাউচের মুখোমুখি হতে হয়।

default-image

বলিউডে কাস্টিং কাউচ প্রসঙ্গে এই মিস ইউনিভার্স বলেছেন, ‘আমি সত্যিই জানি না যে বলিউডে প্রবেশের জন্য কী ধরনের পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হয়। কিন্তু আমি কীভাবে পরিস্থিতির মোকাবিলা করব বা কী সিদ্ধান্ত নেব, সেটা সম্পূর্ণভাবে আমার ওপর নির্ভর করবে। তাই এ বিষয়ে এখনই কথা বলা অর্থহীন।’ বলিউডের কোন কোন নায়িকার সঙ্গে হারনাজ পর্দায় আসতে চান, জবাবে তিনি বলেছেন, ‘আমি সুস্মিতা সেন, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া আর লারা দত্তর সঙ্গে কাজ করতে চাইব। নারীশক্তির ওপর তাঁদের নিয়ে যদি ছবি নির্মাণ করা হয়, তাহলে ভাবুন সেই ছবিটা কতটা শক্তিশালী হবে।’

default-image
বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন