default-image

ভারতের হায়দরাবাদে ‘আরআরআর’ সিনেমার সেট থেকে অনলাইনে ঘুরে বেড়াচ্ছে ভিডিওটি। সেটভর্তি শত মানুষ উল্লাস করছে। আকাশে ভেসে বেড়াচ্ছে বেলুন, ফানুস। একঝাঁক বেলুনের সঙ্গে ব্যানারে লেখা উঠছে, ‘হ্যাপি বার্থডে রাম চরণ।’ নানা রঙে আলোকিত আকাশে ছড়িয়ে পড়ছে আতশবাজি। এদিকে ‘বার্থডে বয়’ রাম চরণ জড়িয়ে ধরে আছেন পরিচালক এস এস রাজামৌলিকে। এই পরিচালকই বানিয়েছেন ‘বাহুবলী।’ এর মাঝে অনেকে এসে জড়িয়ে ধরছে রাম চরণকে। গতকাল শনিবার ছিল দক্ষিণ ভারতের জনপ্রিয় অভিনেতা রাম চরণের ৩৫তম জন্মদিন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কিচ্ছু নেই। শুটিংয়ের সেটে জমকালোভাবে উদ্‌যাপিত হয়েছে নায়কের জন্মদিন। ভাগ্যিস, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার প্রয়োজন নেই। তাই ভক্তরা নানাভাবে শুভেচ্ছা জানিয়ে, ছবি এঁকে, ভিডিও করে, কেক কেটে সেসব পোস্ট করেছেন। শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রিয় অভিনেতাকে। দূরে থেকেও উষ্ণ হৃদয়ে নিশ্চয়ই সেসব উপভোগ করেছেন অভিনেতা।

বিজ্ঞাপন
default-image

রাম চরণের হাতে এখন দুটো সিনেমা। ‘আচার্য’ এবং ‘আরআরআর’। আচার্যতে প্রথমবারের মতো পিতা–পুত্র পাল্লা দিয়ে অভিনয় করবেন। ‘মাগাধীরা’র নায়িকা কাজল আগরওয়ালও হচ্ছেন পিতা–পুত্রের সঙ্গী। আর খলনায়কের ভূমিকায় সোনু সুদ। যদিও মূল চরিত্রে থাকছেন চিরঞ্জীবই। জন্মদিনে এই সিনেমার একটি বিশেষ পোস্টার বের করে পুত্রকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন পিতা। সেটি ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করে রাম চরণ লিখেছেন, ‘বাবা, কীভাবে যে ধন্যবাদ দেব বুঝতে পারছি না। আপনার সঙ্গে অভিনয় করা আমার অভিনয়জীবনের সেরা প্রাপ্তি। জন্মদিনে এর চেয়ে বড় উপহার আর হয় না।’

জন্মদিনেই প্রকাশিত হলো বহুল প্রতীক্ষিত ‘আরআরআর’ সিনেমার পোস্টার। সূর্য আর আগুনের মাঝে বীরের বেশে তীর উঁচু করে ধরেছেন চরণ। এখানে পৌরাণিক যোদ্ধা আল্লুরি সীতারাম রাজুর চরিত্রে হাজির হয়েছেন তিনি। পোস্টারে প্রিয় নায়ককে এমন রূপে দেখার পর ভক্তদের আগ্রহ যেন আরও বেড়ে গেছে। এ ছবিতে আরও অভিনয় করছেন জুনিয়র এনটিআর, বলিউডের অজয় দেবগণ, আলিয়া ভাট প্রমুখ। ৪৫০ কোটি টাকা বাজেটের এই ছবিতে একটি বিশেষ চরিত্রে দেখা দেবেন আমির খান।

default-image

রাম চরণের বাবা তেলেগু সিনেমার সুপারস্টার চিরঞ্জীব। ২০০৭ সালে পুরী জগন্নাথ পরিচালিত প্রথম ছবি ‘চিরুথা’ দিয়েই বাজিমাত করেন তিনি। তাঁর দুই বছর পর মুক্তি পেল ‘মাগাধীরা’। এখানে মূল চরিত্রে রাম চরণের পাশে বাবা চিরঞ্জীবের সংক্ষিপ্ত উপস্থিতি আকর্ষণ বাড়িয়েছিল। এরপর কেবলই তরতর করে এগিয়ে যাওয়ার পালা। ১৩ বছরের ক্যারিয়ারে মাত্র ১৩টি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে তাঁর। জনপ্রিয়তার জরিপে তিনি থাকবেন একেবারে প্রথম সারিতে, তেলেগু সিনেমা ইন্ডাস্ট্রির সেরা তারকাদের একজন হিসেবে।

উপাসনা কামিনীর সঙ্গে রাম চরণের সুখের সংসার। উপাসনার শেয়ার করা একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, শহরের বড় বড় বিলবোর্ডে রাম চরণের ছবি। সেখানেও তাঁকে জানানো হয়েছে জন্মদিনের শুভেচ্ছা। ২০২০ সালের ডিসেম্বরে লক্ষণ ছাড়াই করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন রাম চরণ। সুস্থ হয়ে কাজে ফিরে পেলেন দারুণ একটা জন্মদিন।

বিজ্ঞাপন
বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন