আসি আসি করে রাত ৯টা ৪০ মিনিটে মঞ্চে এলেন নোরা। নোরা যখন রাজকীয় ভঙ্গিতে ধীর পায়ে মঞ্চে আসছেন, তখন তাঁকে ‘দিলবার’ গানের তালে বরণ করে নেন ঈগল ড্যান্স কোম্পানির শিল্পীরা। ‘দিলবার’ গানে পাঁচ সেকেন্ডের মতো কোমর দুলিয়েই নাচের লাগাম টানলেন নোরা। ততক্ষণে নোরাকে পেয়ে উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়ছেন দর্শকেরা। ‘নোরা’, ‘নোরা’ বলে অভিবাদন জানাচ্ছেন দর্শকেরা। তার জবাবে মঞ্চ থেকে দর্শকদের দিকে উড়ন্ত চুমু ছুড়লেন নোরা।

গতকাল রাতে রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় উইমেন লিডারশিপ করপোরেশনের আয়োজনে ‘উইমেন এমপাওয়ারমেন্ট ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক আয়োজনে অংশ নিয়ে এমন অভিজ্ঞতার মুখে পড়েছিলেন ঢাকার দর্শকেরা। আয়োজকেরা বলেছিলেন, এতে ৪০ মিনিটের পরিবেশনায় অংশ নেবেন নোরা। সেই আয়োজনের টিকিট ১৫ হাজার, ১০ হাজার ও ৫ হাজার টাকায় বিক্রি করেছেন তাঁরা।

নোরার নাচ ছাড়াই অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার পর পান্থপথ থেকে আসা ব্যবসায়ী আসিফ ইকবাল প্রথম আলোকে জানালেন, নোরার নাচ দেখার জন্য পাঁচ হাজার টাকায় তিনি টিকিট কিনেছেন। তবে নোরার নাচ না দেখে হতাশ হয়েছেন। তার ভাষ্যে, ‘নোরা নাচবেন না—এটা ভাবতেও পারিনি, টিকিট কেটে শুধু শুধু অর্থ অপচয় করলাম।’

নোরা নাচলেন না কেন—এমন প্রশ্নের জবাবে আয়োজকদের একজন নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় থেকে আমাদের অনুমতি দেওয়ার সময়ই বলা হয়েছিল, শুধু তথ্যচিত্রের শুটিং হবে; কোনো পরিবেশনায় অংশ নিতে পারবেন না। প্রশাসনের তরফ থেকে আমাদের বলা হয়েছিল, নোরা যেন না নাচে। যে পাঁচ সেকেন্ড পারফর্ম করেছেন, সেটা নিয়েও প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়েছে আমাদের।’

মঞ্চ ছাড়ার আগে বাংলাদেশের মানুষের প্রতি ভালোবাসা জানিয়ে গেলেন এ বলিউড তারকা। নোরা বলেন, ‘দ্বিতীয়বারের মতো ঢাকায় এলাম, ঢাকায় আসাটা সব সময়ের জন্যই আনন্দের। সবাইকে ধন্যবাদ।’ নারীদের এগিয়ে যাওয়ার বার্তাও দিয়েছেন নানা চড়াই-উতরাই পেরিয়ে বলিউডে নামকরা নোরা; ‘আত্মবিশ্বাসী থাকুন, নিজের প্রতি বিশ্বাস রাখুন। আর অবশ্যই নিজেকে শিক্ষিত হিসেবে গড়ে তুলুন।’

নোরা ফাতেহির মঞ্চে আসার দুই ঘণ্টা আগে শুরু হয়েছিল ‘উইমেন এমপাওয়ারমেন্ট ইন বাংলাদেশ’ অনুষ্ঠানের নানা আয়োজন। সন্ধ্যা ৭টায় শুরু হওয়া ওই আয়োজনের ফ্যাশন শোতে অংশ নেন ঢালিউডের এ সময়ের জনপ্রিয় নায়িকা পূজা চেরি। সাবিলা নূরসহ আরও কয়েকজনকে দেখা গেছে মঞ্চে।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিটিভির মহাপরিচালক সোহরাব হোসেন, সাবেক সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদসহ অনেকে।

হিন্দির পাশাপাশি তেলেগু, মালয়ালম ও তামিল ছবিতেও নোরা ফাতেহির সরব উপস্থিতি নজর কাড়ে। কেবল বড় পর্দায় নয়, ছোট পর্দা ও মিউজিক ভিডিওতেও সমান জনপ্রিয় তিনি। ‘বিগ বস-৯ ’, ‘ঝলক দিখলা যা’, ‘কমেডি নাইটস’, ‘এমটিভি ট্রল পুলিশ’সহ অন্যান্য রিয়েলিটি শোতেও তাঁর পারফরম্যান্স নজরকাড়া।

মরক্কীয় বংশোদ্ভূত নোরার জন্ম ও বেড়ে ওঠা কানাডায়। ছোটবেলায় তিনি শাহরুখ খান ও হৃতিক রোশনের ভক্ত ছিলেন। আরবিতে ডাব করা তাঁদের অভিনীত সিনেমা দেখে বড় হয়েছেন নোরা। সেই থেকে স্বপ্ন, বলিউডে কাজ করবেন। কিন্তু রক্ষণশীল অভিভাবকের বাড়িতে সেটি ছিল প্রায় অসম্ভব। বলিউডে নাম লেখানোর স্বপ্ন নিয়ে ভারতে পা রেখেছিলেন তিনি।