অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে সন্তান জন্মদান এড়ানোর জন্য অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পর থেকেই বিশেষজ্ঞদের তত্ত্বাবধানে বিশেষ ধরনের ব্যায়াম করছিলেন আলিয়া।

অভিনেত্রীর একটি ঘনিষ্ঠ সূত্র জানায়, মা হতে যাচ্ছেন জানার পর থেকেই নিজের আলাদা যত্ন নেওয়া শুরু করেন অভিনেত্রী। তখন থেকে চাইছিলেন তাঁর যেন নরমাল ডেলিভারি হয়। এ জন্য ভোরবেলা নিয়মিত যোগব্যায়াম করতেন।

এ ছাড়া আলিয়ার শাশুড়ি নীতু কাপুর তাঁর খাবারের দিকে বিশেষভাবে খেয়াল রেখেছেন। জানা গেছে, পুত্রবধূর জন্য তিনি স্বাস্থ্যকর লাড্ডু তৈরি করেছিলেন। এ ছাড়া পুত্রবধূর নরমাল ডেলিভারি যাতে হয়, সে জন্য নানাভাবে পরামর্শ দিয়েছেন

আলিয়ার মা হওয়ার খবরে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন আলিয়ার বাবা মহেশ ভাট। আলিয়ার মেয়ে হওয়ার ঘটনাকে তিনি ‘নতুন সূর্যোদয়’ হিসেবে অভিহিত করেছেন।

এদিকে মা হওয়ার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেওয়া এক প্রতিক্রিয়ায় আলিয়া বলেছেন, ‘আমাদের জীবনের সেরা ঘটনা...আমাদের মেয়ে ভূমিষ্ঠ হয়েছে…কী মিষ্টি মেয়ে হয়েছে… মা ও বাবা হিসেবে আমাদের খুশি উপচে পড়ছে।’