এ প্রসঙ্গে মানুষি বলেছেন, ‘তেহরান ছবির শুটিং করা আমার জন্য দারুণ এক অভিজ্ঞতা। প্রতিদিন কিছু না কিছু শিখেছি। এমনকি রাতেও শুটিং করেছি। বিশ্বাস করুন, ১৫ রাত ঘুমাতে পারিনি। আমার ক্যারিয়ারে এভাবে রাতজাগার অভিজ্ঞতা এই প্রথম। আর প্রতিটা রাত আমি উপভোগ করেছি। একজন শিল্পী হিসেবে এই শিল্পকলাকে আমি অন্যভাবে দেখার সুযোগ পেয়েছি, আর এর থেকে শেখার সুযোগ পেয়েছি।’

‘একজন অভিনয়শিল্পী হিসেবে ক্রমে আমি নিজেকে বিকশিত করতে চাই। সু-অভিনেতা হিসেবে নিজেকে প্রমাণ করতে চাই। আমি চাই আরও ভালো পারফরম্যান্স দিয়ে সবার মনে আর হৃদয়ে জায়গা করে নিতে। “তেহরান” এমন এক ছবি, যার মাধ্যমে আমি সবার হৃদয় ছুঁতে পারব,’ মানুষির প্রত্যয়।

দীনেশ ভিজান প্রযোজিত তেহরান পরিচালনা করছেন অরুণ গোপালন। তাঁদের বিষয়ে মানুষির মন্তব্য ‘অরুণ আর দীনেশকে মেন্টর হিসেবে পেয়ে আমি খুবই খুশি। আমি অত্যন্ত খুশি যে জনের (আব্রাহাম) মতো তারকার সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পেয়েছি। তিনি দারুণ পেশাদার আর সজ্জন। জনের সঙ্গে কাজ করা আর তাঁর থেকে শেখা, সত্যি সৌভাগ্যের বিষয়। সব মিলিয়ে আমার তেহরান ভ্রমণ দুর্দান্ত।’