ছবিতে একজন সারোগেট মায়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন সামান্থা। ছবিতে তাঁর অভিনীত চরিত্রটি দুর্নীতিগ্রস্ত চিকিৎসাব্যবস্থার কালো পর্দা উন্মোচিত করে। নারীকেন্দ্রিক ছবিটি নিয়ে এই তারকা কিছুটা ‘নার্ভাস’ ছিলেন। সম্প্রতি তিনি এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন নদীকেন্দ্রিক ছবি নিয়ে অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। অনেকে এটা নিতে পারে না। এ জন্য তিনি আশঙ্কা করছেন দর্শক প্রেক্ষাগৃহে আসবেন কি না।

ছবিটি সামান্থার ক্যারিয়ারের জন্য গুরুত্বপূর্ণ সংযোজন। ‘যশোদা’ সামান্থার ক্যারিয়ারে প্রথম ছবি, যা হিন্দি ভাষার দর্শকদের জন্য মুক্তি পাবে। ছবিটি তামিল ও তেলেগু ভাষায় শুট করা হয়েছে। পাশাপাশি হিন্দি, মালয়ালম, কন্নড় ভাষাতে মুক্তির জন্য ডাব করা হয়েছে। শুধু যে অসুস্থতার মধ্যে শুটিং করেছেন তা নয়, অ্যাকশন ঘরানার এই ছবির অ্যাকশন দৃশ্যের জন্য মারপিটের প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন সামান্থা।

কিছুদিন আগে ‘যশোদা’ ছবির ট্রেলার মুক্তি পেয়েছে। ছবির ট্রেলারেই দর্শকের মন জয় করেছেন সামান্থা। ছবিতে সামান্থা ছাড়াও আরও আছেন বরলক্ষ্মী সরথকুমার, উন্নি মুকুন্দন, রাও রমেশ, মুরলি শর্মা, সম্পদরাজ, মধুরিমা। হরি ও হরিশ পরিচালিত অ্যাকশন থ্রিলার ছবি ‘যশোদা’ মুক্তি পাবে আগামীকাল।