পলক ও মিথুনের বিয়েতে আত্মীয়স্বজন ছাড়া সংগীত দুনিয়ার অনেকে উপস্থিত ছিলেন। বিয়ের পর তাঁরা এক জমকালো পার্টির আয়োজন রেখেছিলেন। গায়ক জাভেদ আলী, সোনু নিগম সপরিবার এ অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন। এই রাতে বিনোদন দুনিয়া থেকে দেখা গিয়েছিল রুবেনা দিলেইক, অভিনব শুক্লা, স্মৃতি মন্দানা, কৈলাশ খের, নীতি মোহন, পার্থ সমথান, আরমান মালিক, রশমি দেশাই, ভূষণ কুমারসহ আরও অনেককে।

সালমান খান, জ্যাকি শ্রফ, এ আর রহমানসহ আরও অনেক বিটাউন তারকাকে নাকি তাঁরা আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। পলক এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন যে তাঁর সংগীত ক্যারিয়ারের পেছনে সালমান খানের অনেক বড় ভূমিকা আছে।

পলক ও মিথুনের বিয়ের ছবি এ মুহূর্তে নেট দুনিয়াকে উষ্ণ করে তুলেছে। সবাই নবদম্পতিকে ভালোবাসা ও শুভকামনায় ভরিয়ে দিচ্ছেন। ছবি দেখে বোঝা যাচ্ছে, তাঁরা একে–অপরকে পেয়ে অত্যন্ত খুশি। পলক বিয়ের বেশ কিছু রোমান্টিক ছবি তাঁর ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে পোস্ট করেছেন। ছবির ক্যাপশনেও আছে ভালোবাসার ছোঁয়া। এই গায়িকা লিখেছেন, ‘আজ আমরা চির জীবনের জন্য এক হলাম। আমাদের নতুন পথচলা শুরু হলো।’

ক্যাপশন পড়ে বোঝা যাচ্ছে, এ দিনটার অপেক্ষায় তাঁরা দুজনই ছিলেন। বিয়ের ছবিতে পলককে দেখা যাচ্ছে, লাল টুকটুকে লেহেঙ্গা-চোলিতে। এক পিঠ খোলা চুল, সাবেকি অলংকারে কনেবেশী পালক ছিলেন অপরূপা। অফ হোয়াইট রঙের শেরওয়ানিতে মিথুন এই রাতে কোনো রাজপুত্রের থেকে কম ছিলেন না। ৪ নভেম্বর থেকে পালক আর মিথুনের বিয়ের আচার, অনুষ্ঠান শুরু হয়ে গিয়েছিল। জানা যায়, ইন্দোরে এই জুটি এক জমকালো রিসেপশনের আয়োজন করতে চলেছেন।

‘আশিকি টু’ ছবির হাত ধরে বলিউডে পা রেখেছিলেন পলক। এরপর তাঁর সুরেলা কণ্ঠ মাতিয়ে রেখেছে সংগীত দুনিয়াকে। এদিকে মিথুনের ঝুলিতে আছে অসংখ্য হিট গান। বলিউডে খুব অল্প সময়ের মধ্যে নামডাক হয়েছে তাঁর।