এদিকে অসীম আলুওলিয়ার আরেক নারীকেন্দ্রিক ছবি ‘আ গার্ল ইন দ্য ইয়েলো স্যুটকেস’-এর অন্যতম মূল নায়িকা বাণী। তাঁর সঙ্গে এই ক্রাইম ড্রামা ছবিতে আছেন বলিউড নায়িকা সোনাক্ষী সিনহা। সদ্য খবর আবার একটি নারীকেন্দ্রিক ছবির অংশ হতে চলেছেন বাণী। নিখিল আদভানির আগামী ছবির সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন তিনি। ছবির নাম এখনো ঠিক হয়নি। মীতাক্ষরা কুমার পরিচালিত ছবির গল্প পাঁচ মেয়েকে ঘিরে। আর এই পাঁচ কন্যার একজন যে বাণী, তা মোটামুটি নিশ্চিত।

বাণী এখন ‘আ গার্ল ইন দ্য ইয়েলো স্যুটকেস’ ছবির শুটিংয়ে ব্যস্ত। এই ছবির শুটিং শেষ হলে নিখিলের ছবির কাজ শুরু করবেন তিনি। বাণী বলেন, ‘রূপসী আর প্রতিভাবান অভিনেত্রীতে ভরা আমাদের ইন্ডাস্ট্রি। সহ–অভিনয়শিল্পী হিসেবে সব সময় তাঁদের আমি পেতে চেয়েছিলাম। এবার আমি সে পথেই হাঁটছি।’ বাণী জানান যে তাঁর ইচ্ছার তালিকাটা বেশ লম্বা।

তিনি বলেন, ‘আমি সব ধরনের চরিত্রে নিজেকে অন্বেষণ করতে চাই। বিশেষ করে অ্যাকশনধর্মী ছবিতে অভিনয়ের প্রবল ইচ্ছা আছে। আমার মনে হয় না যে আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতে এক ছবিতে একাধিক নায়িকাকে নিয়ে সেভাবে অ্যাকশন ছবি নির্মাণ করা হয়েছে। এ ছাড়া কমেডি আর পুরোদস্তুর প্রেমের ছবিতে অভিনয় করা আমার ইচ্ছার তালিকায় আছে। রহস্য-রোমাঞ্চধর্মী ছবিও আমায় খুব আকৃষ্ট করে। এমনকি ধূসর চরিত্রেও নিজেকে আমি পরখ করতে চাই। আসলে নিজেকে আমি কোনো এক বিশেষ ঘরানায় বেঁধে রাখতে চাই না।’

ইতিমধ্যে দক্ষিণি ছবির জগতে পা রেখেছেন বাণী। তাঁর ঝুলিতে মাত্র একটি দক্ষিণি ছবি আছে।

দক্ষিণি ছবির প্রসঙ্গে বলেন, ‘আমি দক্ষিণি ছবিতে কাজ করার অপেক্ষায় আছি। দক্ষিণের দুই নায়ক আল্লু অর্জুন আর ধানুশ আমাকে দারুণভাবে অনুপ্রাণিত করেন। তাঁরা দুজনেই অভিনেতা হিসেবে তুখোড়। আমার বিশ্বাস যে একদিন এই দুই দক্ষিণি তারকার সঙ্গে আমার কাজ করার সৌভাগ্য হবে।’