এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘“ডাবল এক্সএল” ছবিতে আমি রাজশ্রী ত্রিবেদি নামের একজন সাদামাটা মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছি। ছোট শহরে বেড়ে ওঠা মেয়েটির এক আকাশ স্বপ্ন। কিন্তু রাজশ্রীর চরিত্রের জন্য ওজন বাড়ানোর কথা শুনে শুরুতে ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম। আমার কাছের সব মানুষ এবং যাদের ওপর আমি অত্যন্ত ভরসা করি, তারা প্রত্যেকে আমায় ছবিটা করতে নিষেধ করেছিল। তাদের কথা, ছবিটা করলে আমি বড় ভুল করব। এখানেই আমার ক্যারিয়ারের শেষ হয়ে যাবে। কিন্তু কারও কোনো কথায় আমি কান দিইনি। আমি নিজের মনকে শক্ত করেছি। আর “ডাবল এক্সএল” ছবিটি করব বলে সিদ্ধান্ত নিই।’

হুমা আরও বলেছেন, ‘রাজশ্রীর চরিত্রটি আমাকে মুক্তির স্বাদ দিয়েছে, আমাকে মানসিকভাবে শক্তিশালী করেছে। আর তাই এই ছবির শুটিং করার অনুভূতি দুর্দান্ত ছিল। ছবিটা আমাকে কঠিন আর আত্মবিশ্বাসী করে তুলেছে।’

একের পর এক নতুন চ্যালেঞ্জ নেওয়া প্রসঙ্গে হুমা বলেছেন, ‘আমাদের দেশে মেয়েদের জন্য খুব কমই ভালো চরিত্র লেখা হয়। আর তাই ভালো কোনো চরিত্রের সুযোগ এলে লুফে নিতে দ্বিধা করি না। স্রোতের বিপরীতে সাঁতার কাটা খুব কঠিন কাজ। অনেক সময় মনে হয় বোকামো। কিন্তু আমি সমতা বজায় রেখে চলতে চাই। আমি চাই, এমন কিছু চরিত্রে অভিনয় করতে, যার জন্য মানুষ আমাকে ভালোবাসবে। আর মানুষ আমাকে সারা জীবন মনে রাখবে যে আমি নতুন এবং ব্যতিক্রমী কিছু করার প্রয়াস করেছি।’

‘ডাবল এক্সএল’ পরিচালনা করেছেন পরিচালক সতরাম রমানি। সমাজের গুরুতর এক বিষয়কে হাস্যরসের মোড়কে পরিবেশন করেছেন এই পরিচালক। ছবিটির মূল দুই পুরুষ চরিত্রে আছেন জাহির ইকবাল আর মহৎ রাঘবেন্দ্র। ৪ নভেম্বর ছবিটি মুক্তি পাবে।