default-image

দিল্লির মেয়ে হলেও রাকুল অভিনয়জগতে পা রেখেছিলেন কন্নড় ছবির মাধ্যমে। এরপর একের পর এক তামিল, তেলেগু, মালয়ালম ছবিতে অভিনয় করেছেন। ২০১৪ সালে বলিউডে অভিষেকের আগেই রাকুল দক্ষিণে অনেক বড় তারকা। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এই অভিনেত্রী বলেন, ‘দু-তিন বছর ধরে প্যান ইন্ডিয়া নিয়ে অনেক কথা হচ্ছে। এ নিয়ে আমার আপত্তি নেই। তবে এটা স্রেফ শব্দ ছাড়া আর কিছু নয়। এটা আমার মনের ওপর কখনোই প্রভাব ফেলে না।’ কয়েক মাসে দক্ষিণ ভারত ও উত্তর ভারতের সিনেমা নিয়ে বহু বিতর্ক হয়েছে। মহেশ বাবু থেকে অজয় দেবগন পর্যন্ত যে বিতর্কে শামিল হয়েছেন।

default-image

এ প্রসঙ্গে রাকুল বলেন, ‘উত্তর, দক্ষিণের দুই পৃথিবীতেই আমি কাজ করছি। তেলেগু ছবির জগতের প্রায় সবার সঙ্গেই অভিনয় করেছি। বলা যায়, ক্যারিয়ারে এ পর্যন্ত সেরা অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করেছি। তবে এটা (বলিউড) আমার কাছে নতুন এক জগৎ। এখানেও সমানভাবে উপভোগ করছি।’ চলতি বছরে অজয় দেবগন অভিনীত ও প্রযোজিত ‘রানওয়ে থার্টিফোর’ ছবিতে দেখা গেছে রাকুলকে।

default-image

শিগগিরই দেখা যাবে ‘ছতরিওয়ালি’তে। যেখানে জন্মনিয়ন্ত্রক সামগ্রীর পরীক্ষকের ভূমিকায় দেখা যাবে অভিনেত্রী। মুক্তির আগে থেকেই ছবিতে রাকুলের সাহসী চরিত্র নিয়ে কথা হচ্ছে। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘দেখার পর বোঝা যাবে, কতটা জরুরি বিষয় নিয়ে ছবিটি তৈরি হয়েছে। বিষয়টি যে খুবই সংবেদনশীল, এটা আমাদের মাথায় ছিল। তবে পর্দায় গুরুগম্ভীরভাবে নয়, হালকা মেজাজেই বিষয়টি তুলে আনার চেষ্টা করেছি। এটা এমনই এক ছবি, যা মা–বাবার সঙ্গেও দেখা যাবে। একটি সংলাপ বা দৃশ্যও আপনাকে অস্বস্তিতে ফেলবে না। এটা পুরোপুরি পারিবারিক ছবি।’ এখনো দিন–তারিখ ঠিক না হলেও চলতি বছরই মুক্তি পাবে ‘ছতরিওয়ালি’। এটা ছাড়াও হিন্দি ও তামিল মিলিয়ে ২০২২ সালে আরও পাঁচটি সিনেমা মুক্তি পাবে রাকুলের।

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন