মাত্র ১০ দিনে সিনেমাটি শেষ করেন কার্তিক আরিয়ান। ১০ দিন শুটিং করেই ২০ কোটি রুপি আয়—এই শিরোনামে তখন নানা ধরনের খবরও প্রকাশিত হয়েছিল। বিষয়টি নিয়ে এবার কথা বলেছেন কার্তিক নিজেই।

বলিউডে কার্তিক আরিয়ানের উত্থান হয়েছে ধীরে ধীরে। তিনি বলিউড পরিবারের কেউ নন, তথাকথিত ‘আউটসাইডার’। নিজেকে ‘হিট নায়ক’ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে কয়েক বছরের সংগ্রামের মধ্যে দিয়ে যেতে হয়েছে তাঁকে। ২০১১ সালে নিজের প্রথম সিনেমা ‘পেয়ার কা পঞ্চনামা’র জন্য মাত্র ১ লাখ ২৫ হাজার রুপি পেয়েছিলেন অভিনেতা। সেই কার্তিক এক দশকের ব্যবধানে মাত্র ১০ দিন কাজ করেই ২০ কোটি পাচ্ছেন।

নতুন এক সাক্ষাৎকারে এখন এত বেশি পারিশ্রমিক হাঁকানোর কারণও জানান অভিনেতা। কার্তিক বলেন, ‘আমি তো বলিউডের শেহজাদা।’ কার্তিকের পরের ছবির নামও ‘শেহজাদা’, যা মুক্তি পাবে আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি। তাই উত্তরটি কার্তিক মজা করে দিয়েছেন কি না, সেটা বলা মুশকিল। তবে পারিশ্রমিকের বিষয়টি স্বীকার করে নিয়েছেন।

এর আগেই একই বিষয়ে কথা বলেছেন অভিনেতা। ইন্ডিয়া টিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘করোনার মধ্যে ছবিটির শুটিং হয়। আমি নিজের পারিশ্রমিকের কথা প্রযোজককে জানাই, তিনিও রাজি হন। আমি প্রযোজককে ২০ দিনে দ্বিগুণ আয় করার সুযোগ করে দিই। ফলে ওই পারিশ্রমিক (২০ কোটি রুপি) আমার ন্যায্য চাওয়াই ছিল।’

কার্তিকের নতুন ছবি ‘শেহজাদা’য় তাঁর সঙ্গে জুটি হয়েছেন কৃতি শ্যানন।