শাহরুখপ্রেমীরা তাঁদের প্রিয় তারকার প্রতি সম্পূর্ণ নিবেদিত, তা সবারই জানা। ‘পাঠান’ ছবি মুক্তির আগেই বক্স অফিসে তার ঝলক দেখা যাচ্ছে। শাহরুখকে বড় পর্দায় আবার দেখার জন্য তাঁর অনুরাগীরা যেকোনো মূল্য দিতে প্রস্তুত। ২০ জানুয়ারি থেকে ছবির অগ্রিম টিকিট বুকিং শুরু হয়ে গেছে। আর তখন থেকে সবাই বক্স অফিসে হুমড়ি খেয়ে পড়েছেন। জানা গেছে, ‘পাঠান’ ছবির টিকিটের দাম আকাশ ছুঁয়েছে। সিনেমাপ্রেমীরা শাহরুখকে অ্যাকশন ইমেজে দেখার জন্য হাজার হাজার টাকা ওড়াচ্ছেন। বেশ কিছু মলে ‘পাঠান’ ছবির টিকিট বাংলাদেশি মুদ্রায় ২ হাজার ৫০০, ২ হাজার ৩০০ আর ২ হাজার ১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এত দামি টিকিট হওয়া সত্ত্বেও সব শো ইতিমধ্যে হাউসফুল হয়ে গেছে।

দিল্লির বেশ কিছু মাল্টিপ্লেক্সে এই ছবির টিকিট ২ হাজার ২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। বিভিন্ন শহরের মাল্টিপ্লেক্সে সকালের শো-র টিকিটের দাম এক হাজার টাকা রাখা হয়েছে। কিন্তু টিকিটের দাম এত চড়া হওয়া সত্ত্বেও ‘পাঠান’-এর অগ্রিম বুকিং অনেক রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে। সিদ্ধার্থ আনন্দ পরিচালিত এই ছবির হিন্দি আর তেলেগু সংস্করণের টিকিট সব থেকে বেশি বিক্রি হচ্ছে। এক রিপোর্ট অনুযায়ী, কিং খান আর দীপিকা পাড়ুকোন অভিনীত ছবিটি এখন পর্যন্ত ১৪ দশমিক ৬৬ কোটি টাকা আয় করেছে।

‘পাঠান’ ছবিকে ঘিরে বিতর্কের শেষ নেই। এই ছবির ‘বেশরম রং’ গানটি মুক্তি পাওয়ার পর নেট দুনিয়ায় আগুন ঝরে পড়েছে। বিশেষ করে এই গানে দীপিকার গেরুয়া রঙের বিকিনির জন্য ধর্ম অবমাননার অভিযোগ তুলেছে বেশ কিছু রাজনৈতিক দল। ‘পাঠান’-কে ঘিরে বর্জনের ডাক উঠেছে নেট পাড়ায়। গুজরাট, আসামসহ বেশ কিছু রাজ্যের শহরে শাহরুখের ছবিটিকে ঘিরে অসন্তোষ প্রকাশ করছে ধর্মীয় সংগঠন। তবুও ‘পাঠান’ সব বিতর্ককে তুড়ি মেরে উড়িয়ে দিয়ে এখনই বক্স অফিস দাপিয়ে বেড়াচ্ছে।