আড়াই শ ছবিতে শাকিবের ৫০ নায়িকা

বিজ্ঞাপন
default-image

দুই দশকে শাকিব খান অভিনয় করেছেন আড়াই শতাধিক সিনেমায়। প্রথম ছবিতে তাঁর নায়িকা হয়ে পর্দায় অভিষেক ঘটে ইরিন জামানের। দীর্ঘ পথচলায় দেশ-বিদেশের ৫০ নায়িকা তাঁর সঙ্গে পর্দা ভাগাভাগি করেছেন।

‘অনন্ত ভালোবাসা’ নামের এই সিনেমার পরিচালক ছিলেন সোহানুর রহমান সোহান। মুক্তির দিক দিয়ে পর্দায় অভিষেক ইরিনের সঙ্গে হলেও শাকিব প্রথম সিনেমায় অভিনয় করেন নবাগত কারিশমা শেখ নামের একজন নায়িকার বিপরীতে। ১৯৯৯ সালে চুক্তিবদ্ধ হওয়া এই সিনেমার নাম ‘সবাই তো সুখী হতে চায়’ চলচ্চিত্রে। আফতাব খান টুলু পরিচালিত এ ছায়াছবির মাধ্যমে তিনি প্রথম ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়েছিলেন। এই নায়িকা নিয়ে পরবর্তী সময়ে আরও কয়েকবার পর্দায় হাজির হন শাকিব।

default-image

১৯৯৯ সালের ২৮ মে মুক্তি পাওয়া ‘অনন্ত ভালোবাসা’ সিনেমা দিয়ে শাকিব আলোচনায় আসেন। শাকিব ও ইরিন দুজনেরই এটি ছিল প্রথম মুক্তিপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র। সিনেমা হিসেবে ‘অনন্ত ভালোবাসা’ খুব একটা সফল না হলেও নায়ক শাকিব খান ঠিকই সবার নজর কাড়তে সক্ষম হন।

২০ বছরের পরিশ্রমে শাকিব খান দেশের সিনেমার এক নির্ভরতার নাম। তবে অনেক চড়াই-উতরাই পেরিয়ে তাঁকে আজকের অবস্থানে আসতে হয়েছে। এ সময়ের মধ্যে কত আলোচনা, সমালোচনা, বিতর্ক, প্রশংসা—তার হিসাব নেই। দীর্ঘ অভিনয়জীবনে অনেক নায়িকা তাঁর বিপরীতে পর্দায় এসেছেন। এর মধ্যে সবচেয়ে আলোচিত জুটি হিসেবে শাকিবের সঙ্গে দর্শকেরা অপুকে বেশি দেখেছেন।

এখন পর্যন্ত শাকিব খানের অভিনয়জীবনের সর্বাধিক ছবির নায়িকা অপু বিশ্বাস। তাঁরা দুজন একসঙ্গে ৮০টির বেশি সিনেমায় অভিনয় করেছেন। গত এক দশকে শাকিব-অপু জুটি হয়ে অসংখ্য ব্যবসাসফল সিনেমা উপহার দিয়েছেন। এফ আই মানিক পরিচালিত ‘কোটি টাকার কাবিন’ এই দুজনের প্রথম সিনেমা। প্রথম সিনেমা ব্যবসাসফল হওয়াতে তাঁদের জুটি করে নির্মাতারা একের পর এক সিনেমা বানাতে শুরু করেন।

default-image

শাবনূরের সঙ্গেও জুটি হয়ে কয়েকটি সিনেমায় অভিনয় করেছেন শাকিব খান। দুজন মিলে দারুণ কিছু ছবি দর্শকদের উপহার দিয়েছেন। শাবনূর ও শাকিব প্রথম অভিনয় করেন ‘গোলাম’ ছবিতে। ২০০৯ সালের পর আর একসঙ্গে কাজ করেননি তাঁরা। শাবনূরের সঙ্গে ‘ফুল নেব না অশ্রু নেব’ সিনেমায়ও শাকিব আলোচনায় আসেন।
মৌসুমীর সঙ্গেও জুটি হয়ে কয়েকটি সিনেমায় অভিনয় করেছেন শাকিব খান। প্রথমে একসঙ্গে জুটি হয়ে অভিনয় করলেও পরে ভাই-বোনের চরিত্রে কাজ করেন কয়েকটা ছবিতে। এই দুজনের সবচেয়ে আলোচিত সিনেমা ‘দেবদাস’।

‘আজকের দাপট’ ছবিতে তরুণ জুটি বলে বিবেচিত হয়েছিলেন শাকিব-পূর্ণিমা। এই জুটিকে দারুণ সম্ভাবনাময় ভাবা হয়েছিল। যদিও বাস্তবে একটি-দুটি হিট ছবির বাইরে খুব বেশি আলোচনায় আসেননি তাঁরা। যে কয়টা সিনেমায় তাঁরা অভিনয় করেছেন, দুজনকে পর্দা বেশ মানিয়ে যেত। একসময়ের আলোচিত নায়িকা মুনমুনের সঙ্গে অভিনয় করেছেন শাকিব। ‘বিষে ভরা নাগিন’ ছিল এই জুটির প্রথম সিনেমা। প্রথম সিনেমা ব্যবসায়িকভাবে সফল হয় এবং শাকিব ও মুনমুন আলোচনায় আসেন। এরপর তাঁরা দুজন আরও কয়েকটি সিনেমায় অভিনয় করেন।

মুক্তির দিক দিয়ে শাকিবের দ্বিতীয় সিনেমা ‘দুজন দুজনার’-এ নায়িকা ছিলেন পপি। শুরুর দিকে একটি ভালো জুটি গড়ে ওঠার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছিল। পরবর্তীকালে খুব একটা এগোয়নি। তবে তাঁরা দুজন বেশ কয়েকটি ব্যবসাসফল ছবি উপহার দেন।

default-image

বাংলাদেশের পাশাপাশি ভারতেও জনপ্রিয় একজন অভিনয়শিল্পীর নাম জয়া আহসান। জয়া একটা সময় নাটকে অভিনয় করলেও বেশ কয়েক বছর ধরে তাঁর পুরো মনোযোগ সিনেমায়। দুই দেশে সমানতালে জনপ্রিয় এই অভিনয়শিল্পী জয়া আর শাকিব খানও জুটি হয়ে পর্দা ভাগাভাগি করেছেন। তাঁদের প্রথম সিনেমা ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেমকাহিনি’ প্রশংসিত হলে ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেমকাহিনি ২’ নামের আরেকটি ছবিতে অভিনয় করেন তাঁরা।

তাঁদের বাইরের শাকিবা, বৈশাখী, নদী, নিপুণ, সাহারা, তমা মির্জা, মাহি, তিন্নি, পরীমনি, নুসরাত ফারিয়া, কেয়া, রত্না, মিম, বিন্দু, শখ, রোমানা, সিমলা, ববি, তিশা, পড়শী, রেসী, বিন্দু, আঁচলসহ আরও অনেকের সঙ্গে অভিনয় করেছেন শাকিব। এদিকে গত কয়েক বছরে শাকিবের সঙ্গে অভিনয় করে বেশ আলোচনায় এসেছেন শবনম বুবলী। সংবাদ পাঠিকা থেকে সিনেমায় অভিনয়ে এসে রীতিমতো বাজিমাত করেছেন তিনি। শাকিব খানের বিপরীতে প্রথম সিনেমা ‘বসগিরি’ আলোচিত। এরপর একে একে তাঁরা দুজন ‘শুটার’, ‘রংবাজ’, ‘অহংকার’, ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া নোয়াখাইল্যা মাইয়্যা’, ‘সুপার হিরো’, ‘ক্যাপ্টেন খান’, ‘পাসওয়ার্ড’, ‘মনের মতো মানুষ পাইলাম না’, ‘বীর’ ও ‘বিদ্রোহী’র মতো ছবিতে অভিনয় করেছেন।

default-image

দেশের বাইরের নায়িকাদের মধ্যে শাকিব যাঁদের সঙ্গে অভিনয় করেছেন, তাঁরা হলেন রচনা ব্যানার্জি, স্বস্তিকা, শ্রাবন্তী, পাওলি দাম, পায়েল, শুভশ্রী, নুসরাত। দেশের বাইরের নায়িকাদের মধ্যে যৌথ প্রযোজনার ছবি ‘শিকারি’ হচ্ছে সবচেয়ে ব্যবসাসফল সিনেমা। এই সিনেমার মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্রে নতুন এক শাকিব খানের জন্ম হয়। ছবিটি মুক্তির পর ভারতের পশ্চিমবঙ্গে নিজের একটা ছাপ ফেলতে পেরেছেন শাকিব খান।

default-image

দেশের সিনেমার সবচেয়ে জনপ্রিয় এই নায়কের সঙ্গে নায়িকা হিসেবে সর্বশেষ অভিষেক হয়েছে জাহরা মিতুর। ‘আগুন’ নামের সেই ছবির কাজ এখনো শেষ হয়নি।
২০ বছর ধরে প্রায় অর্ধশত নায়িকার সঙ্গে আড়াই শ ছবিতে অভিনয় করা শাকিব খান তাঁর অভিনয় নিয়ে সন্তুষ্ট হতে পারছেন না। বললেন, ‘আমি এখনো আমার কাজ নিয়ে সন্তুষ্ট নই। মনে হয়, তেমন কিছুই করিনি। আমাকে আরও অনেক দূর যেতে হবে। আমাকে এই মানের কাজ করতে হবে, ওই মানের কাজ করতে হবে…আরও ভালো কাজ করতে হবে।’
আরও অনেক বছর কাজ করতে চান এই নায়ক। শাকিব বললেন, সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আমি আরও কাজ করে যেতে চাই, ভালো কাজ করে যেতে চাই, ছাপ রেখে যেতে চাই। পরবর্তী প্রজন্ম যেন আমার কাজ দেখে অনুপ্রাণিত হয়। বাংলাদেশের সিনেমাকে যেন আরও এগিয়ে নিয়ে যায়।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন