default-image

সিনেমা মুক্তির সঙ্গে সঙ্গে পরিচালক হিসেবে অভিষেক হয় বেশ কিছু নতুন নির্মাতার। তাঁদের অনেকেই চলচ্চিত্রকে জীবনসঙ্গী করে যুদ্ধে নামেন, চড়াই–উতরাই পেরিয়ে টিকেও যান। কেউ কেউ রাজত্ব করেন চলচ্চিত্রের দুনিয়ায়। আবার অনেকেই ভেসে যান নানামুখী সংকটের স্রোতে। জেনে নেওয়া যাক এ বছর থেকে কাদের নামের আগে যুক্ত হচ্ছে ‘চলচ্চিত্র পরিচালক’ পরিচয়টি।

১৯ মার্চ দেশের বড় পর্দায় মুক্তি পেয়েছে জয়া আহসান অভিনীত মুক্তিযুদ্ধের ছবি ‘অলাতচক্র’। এর ভেতর দিয়ে পরিচালক হিসেবে অভিষেক হয়েছে হাবিবুর রহমানের। কেউ চলচ্চিত্রকার হতে চাইলে সাধারণত সাদরে গ্রহণ করে না পরিবার। এই নির্মাতার মা রহিমা বেগম হয়েছেন ছেলের প্রথম ছবির প্রযোজক। এর আগে যে প্রামাণ্যচিত্র আর স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র বানিয়েছেন তিনি, সেগুলোর ক্ষেত্রেও পাশে ছিলেন মা–ই। নানা দৌড়ে প্রথম হয়েছে ছবিটি। আহমদ সফার উপন্যাস অবলম্বনে, সরকারি অনুদানে নির্মিত এই ছবিটি দেশের প্রথম থ্রিডি সিনেমা।

বিজ্ঞাপন
default-image

ছোট পর্দার গুণী নির্মাতা মেজবাউর রহমান সুমনের বড় পর্দায় নাম লেখানো নিয়ে উচ্ছ্বসিত বিনোদন অঙ্গনের অনেকেই। সমুদ্রের জলের সঙ্গে মিশে যাওয়া জেলেদের গল্প নিয়ে নির্মিত সুমনের প্রথম ছবি ‘হাওয়া’। সেন্ট মার্টিনে শুটিং হয়েছে ছবিটির। শুটিং করতে গিয়ে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের কবলেও পড়েছিল শুটিং ইউনিট। এ বছরই মুক্তি পাবে ছবিটি।

সুমনের মতো ছোট পর্দায় নির্মাণে হাত পাকিয়ে এবার বড় পর্দায় যাত্রা শুরু করতে যাচ্ছেন তপু খান। তাঁর প্রথম সিনেমা ‘লিডার আমিই বাংলাদেশ’–এ অভিনয় করবেন ঢালিউডের জনপ্রিয় জুটি শাকিব খান ও শবনম বুবলী। এই নির্মাতা বললেন, ‘ছবির প্রি প্রোডাকশনের কাজ প্রায় শেষ। যে গল্পটা বলতে চাই, সেটি বাংলাদেশের সব মানুষের গল্প। আর শাকিব খান তো নিঃসন্দেহে দেশের এক নম্বর হিরো। শাকিব–বুবলী জুটি খুবই জনপ্রিয়। আমার গল্পে বার্তা আছে, বিনোদনের উপাদানও আছে। এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহেই শুটিংয়ে যাব। রমজান মাস শুটিং চলবে। ঈদুল আজহায় ছবিটি মুক্তি দেব।’

default-image

চিত্রনায়িকা রোজিনাও নাম লিখিয়েছেন বড় পর্দার নির্মাতার খাতায়। নিরব আর স্পর্শিয়াকে নিয়ে চলছে তাঁর ‘ফিরে দেখা’ সিনেমার শুটিং। এদিকে হইচই করে ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’ সিনেমার শুটিং শেষ করেছেন আবু রায়হান জুয়েল। করোনাকালে সিয়াম আহমেদ, পরীমনি ও ২৫ জন শিশুশিল্পী নিয়ে সুন্দরবনে শুটিং করেছেন তাঁরা। অক্টোবর বা নভেম্বরে মুক্তি পাবে ছবিটি। মুক্তিযুদ্ধের সময়কার দুটি পরিবারের গল্প নিয়ে হৃদি হকের প্রথম ছবি ‘১৯৭১ সেইসব দিন’। মুখ্য দুই চরিত্রে অভিনয় করছেন সানজিদা প্রীতি আর সুদীপ বিশ্বাস দীপ। নির্মাতা অঞ্জন আইচ ‘আগামীকাল’ ছবি দিয়ে যাত্রা শুরু করছেন বড় পর্দার। ছবিটি সম্প্রতি জমা হয়েছে সেন্সর বোর্ডে। সেন্সর সার্টিফিকেট পেলে ঈদুল ফিতরে ছবিটি মুক্তি দেবেন বলে জানালেন এই নির্মাতা। চুপিসারে নিজের প্রথম ছবি ‘নন্দিনী’র কাজ করছেন নির্মাতা শোয়েবুর রহমান রাসেল। পরিতোষ বাড়ৈয়ের উপন্যাস ‘নরক নন্দিনী’ অবলম্বনে নির্মিত এই ছবিতে ঢাকার নাজিরা মৌয়ের সঙ্গে অভিনয় করেছেন কলকাতার ইন্দ্রনীল সেনগুপ্ত।

এদিকে আটঘাট বেঁধে সিনেমার পথে নেমেছেন রেজওয়ান শাহরিয়ার সুমিত। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইবিএ থেকে বিবিএ ও এমবিএ শেষ করে চলে গেছেন যুক্তরাষ্ট্রে। ভর্তি হয়েছেন নিউইয়র্ক ইউনিভার্সিটির টিশ স্কুল অব দ্য আর্টসে, পড়েছেন পরিচালনা ও প্রযোজনা নিয়ে। অস্কারজয়ী পরিচালক স্পাইক লি ছিলেন তাঁদের প্রোগ্রাম ডিরেক্টর। এই নির্মাতার প্রথম ছবি ‘নোনাজলের কাব্য’। ছবি মুক্তির বিষয়ে বললেন, ‘এখনো আমরা ভাবছি, ঈদুল ফিতরের পরপরই ছবিটি মুক্তি দেব। করোনা বাস্তবতায় কত দূর কী হয়, দেখা যাক।’ মহামারিকালে হঠাৎ পাওয়া এই বিরতিতে পরের ছবির কাজ এগিয়ে নিচ্ছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন
ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন