default-image

চাষাবাদে আগ্রহ আছে অভিনেতা ফেরদৌস আহমেদের। রাজধানীতে নিজ জমিতে সবজি চাষ করছেন তিনি। সেসব সবজি নিয়মিত রান্না হচ্ছে তাঁর বাড়িতে। সম্প্রতি তিনি জানালেন, অভিনয়ের পর যদি কোনো পেশায় জড়ান, তবে কৃষিকাজই করবেন তিনি।

সম্প্রতি রাজধানীর একটি পাঁচতারা হোটেলের এক অনুষ্ঠানে ফেরদৌস বলেন, ‘শুটিংয়ে সারা দেশ যখন ঘুরতে হয়, তখন কোথায় কী ফল-ফসল হচ্ছে, সেসব আমি খেয়াল করি। কারণ, এসবের প্রতি আমার অন্য রকম একটা আগ্রহ আছে। ভবিষ্যতে যদি আমি পেশা বদল করি, তাহলে কৃষিকাজই করব।’ কৃষিকাজ কেন পছন্দ করেন, সে প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘কালচার আর এগ্রিকালচারের মধ্যে একটা যোগাযোগ আছে। কারণ, দুটোই সৃজনশীল কাজ।’

বিজ্ঞাপন
default-image

আগামী ২ এপ্রিল বিকেলে বসতে যাচ্ছে ‘এসিআই-দীপ্ত কৃষি অ্যাওয়ার্ড ২০২০’-এর আসর। এ অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করবেন অভিনেতা ফেরদৌস আহমেদ। গত রোববার এ–সংক্রান্ত এক সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ফেরদৌস বলেন, ‘আমার মায়ের বাড়ির ছাদে নানা রকম শাকসবজি জন্মে। সেদিন দেখলাম, সেখানে আখ হয়েছে। মা আমাকে আখ খেতে দিলেন। দেখলাম বরই হয়েছে। মায়ের বয়স আশির কোঠায়, তবু মা এখনো সুস্থ আছেন। করোনাকালে মায়ের বেশির ভাগ সময় কেটেছে তাঁর ছাদবাগানে।’

তিশ শ ফিট এলাকায় নিজের ছোট্ট একটা জায়গা আছে ফেরদৌসের। জানালেন সেখানে ফুলকপি, বাঁধাকপি, বেগুনসহ নানা রকম সবজি চাষ করেছেন তিনি। সেখানকার সবজি নিয়মিত রান্না হয় তাঁর বাড়িতে। তিনি বলেন, ‘কৃষি হতে যাচ্ছে আমাদের পরের প্রজন্মের প্রধান ব্যবসা। কারণ, কৃষির চিত্র দ্রুত বদলে যাচ্ছে। আগে পথেঘাটে আমড়া-পেয়ারা বিক্রি হতো। সেদিন ঢাকার বাইরের এক মফস্বল এলাকায় দেখলাম ক্যাপসিক্যাম, স্ট্রবেরি বিক্রি হচ্ছে। এর কৃতিত্ব আমাদের প্রিয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। এখন আমরা খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ, আমাদের খাদ্যপণ্য উদ্বৃত্ত থাকে। এ কাজে বড় ভূমিকা রেখেছেন আমাদের কৃষকেরা। সম্প্রতি হৃদি হকের সিনেমার শুটিংয়ে ঠাকুরগাঁও গিয়েছিলাম। সেখানে দেখলাম, নৌবাহিনীর এক কর্মকর্তা চাকরি ছেড়ে দিয়ে একর কে একর জমিতে আলু চাষ করছেন। তিনি জানালেন, তাঁর উৎপাদিত আলুবীজের ৭০ শতাংশ সরকার কিনে নেয়।’

default-image

২০১৬ সালের জুন থেকে দীপ্ত টিভিতে প্রচারিত হয়ে আসছে কৃষিবিষয়ক অনুষ্ঠান ‘দীপ্ত কৃষি’। অনুষ্ঠানের ১০০০তম পর্ব প্রচারের পর কৃষির অগ্রগতিতে অবদান রাখা কৃষকদের সম্মাননা জানানোর লক্ষ্যে এসিআই-দীপ্ত কৃষি অ্যাওয়ার্ড প্রবর্তন করেছে দীপ্ত টেলিভিশন। সারা দেশ থেকে বাছাই করা কৃষকদের বিচারকমণ্ডলীর মনোনয়নের মাধ্যমে ১০ শাখায় এক লাখ টাকা করে সম্মাননা ও অন্যান্য পুরস্কার দেওয়া হবে। কৃষির প্রতি ভালোবাসা থেকেই এ আয়োজনে যুক্ত হয়েছেন ফেরদৌস। আগামী শুক্রবার বিকেল চারটায় দীপ্ত কার্যালয়ে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে ফেরদৌসের সঙ্গে উপস্থাপক হিসেবে থাকবেন অভিনেত্রী পূর্ণিমা। অনুষ্ঠানের সাংস্কৃতিক পর্বে অংশ নেবেন অভিনয়শিল্পী মাহিয়া মাহি, মেহ্‌জাবীন, নাদিয়া, চাঁদনী প্রমুখ। গান শোনাবেন মমতাজ। অনুষ্ঠানটি সরাসরি প্রচার করবে দীপ্ত টেলিভিশন।

বিজ্ঞাপন
ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন