default-image

বাধ্য হয়ে গোপনে শুটিং করতে হয়েছে হিরো আলমকে। জানুয়ারি মাস থেকে প্রযোজক ও অভিনেতা হিসেবে নতুন ছবির শুটিং শুরু করেছেন তিনি। সেই শুটিংয়ের খবর ফাঁস করা বারণ ছিল ইউনিটের সবার। সম্প্রতি ছবির শুটিং শেষ করে আলম জানালেন, তাঁর ছবির নাম ‘টোকাই’।

অনেকেই আনুষ্ঠানিকভাবে ছবির মহরত করেন। সেসব খবর বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশও হয়। কিন্তু পরে দেখা যায়, সেসব ছবির কাজ বছর পেরিয়ে গেলেও শুরু হয় না। এসব কারণে ছবির আনুষ্ঠানিক মহরত থেকে দূরে ছিলেন হিরো আলম। ‘টোকাই’ ছবিতে নামভূমিকায় অভিনয় করছেন তিনি। আলম বলেন, ‘আমি কিছু করতে গেলেই মানুষ আমার পিছে লাগে। অনেকেই আমার সব কাজে বাধা দিয়ে পণ্ড করে দিতে চায়। সেই সুযোগ না দিতেই লুকিয়ে শুটিং করেছি। কারণ, আমার সঙ্গে এমনও হয়েছে, আমি যাঁদের নিয়ে কাজ করার ঘোষণা দিই, তাঁদের ফোনে কাজ করতে নিষেধ করা হয়। আমার সঙ্গে কাজ করলে নাকি তাঁদের কাজ ও মানসম্মান কমে যাবে। মিডিয়ায় আমার শত্রুর অভাব নেই। সে কারণে কাউকেই কিছু না জানিয়ে শুটিং শেষ করলাম।’ আলম জানান, জানুয়ারি মাস থেকে ১৭ দিন ছবিটির শুটিং করেছেন। এখন চলছে শুটিং–পরবর্তী কাজ। কিছু গানের রেকর্ডিংয়ের কাজও শেষ।

বিজ্ঞাপন
default-image

‘টোকাই’ ছবি নিয়ে আলম বলেন, এটা একটা মানবিক গল্প। অনেক পরিশ্রম করে ছবিটির কাজ করেছেন তিনি। অনেক নামী অভিনয়শিল্পীকে এ ছবিতে দেখা যাবে বলে জানিয়েছেন এই প্রযোজক। অনেকগুলো লোকেশনে শুটিং করা হয়েছে। ছবির বাজেটও ছিল আগের চেয়ে বেশি। বাজেট জানতে চাইলে তিনি বলেন, বাজেট বললে অনেকেই বলাবলি শুরু করবেন, নির্ঘাত এ ছবি চলবে না। আলম এবার পথে বসবেন। এ নিয়েও ট্রল হবে। তিনি বলেন, ‘আমার ছবিতে কাজী হায়াত অভিনয় করেছেন। তিনি আমাকে বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করেছেন। অভিনয় ভালো করার চেষ্টা করেছি। সবকিছু মিলিয়ে এখানে ট্রল করার সুযোগ নেই। তারপরও যাঁরা ট্রল করবেন, তাঁরা সারা জীবন আমাকে নিয়ে ট্রল করে যাবেন। তাঁরা হিরো আলমকে দুই চোখে দেখতে পারেন না। এঁরা অন্যের সমালোচনাকারী। হিরো আলম যা–ই করুক, সেটা নিয়ে অনেকে ট্রল করেন। এতে তাঁরা নিজেদেরই ছোট করেন। শিক্ষিত কিছু মানুষ মূর্খের মতো কাজ করেন।’

default-image

‘টোকাই’ ছবিটি ঈদে মুক্তি দেওয়ার তোড়জোড় চালাচ্ছেন আলম। তিনি জানান, অন্তত একটি হলও যদি পাওয়া যায়, তাহলেও ঈদে ছবি মুক্তি দেবেন তিনি। এর আগে ‘সাহসী হিরো আলম’ নামে একটি ছবি প্রযোজনা করেছিলেন তিনি। সেই ছবিতেও মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন প্রযোজক আলম নিজে। গত বছরের ১৬ অক্টোবর করোনা মহামারির মধ্যে প্রেক্ষাগৃহ খোলার পর মুক্তি পায় ছবিটি। নতুন ছবিতে একটি গান করেছেন মনির খান। একটি গানে হিরো আলম নিজেই কণ্ঠ দিয়েছেন। ছবিতে আরও অভিনয় করেছেন, রেহানা জলি, রীনা খান, দুলালী, ড্যানি রাজ, মেহেদি, ইরা শিকদার, রিয়া চৌধুরী প্রমুখ। ছবিটি পরিচালনা করেছেন বাবুল রেজা। কাহিনি লিখেছেন এ আর মুকুল নেত্রবাদী।

default-image
বিজ্ঞাপন
ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন