default-image

সম্প্রতি বরের সঙ্গে বিচ্ছেদ হয় নায়িকা মুনমুনের। ঘটনার পর মানসিকভাবে কিছুটা ভেঙে পড়েছিলেন তিনি। সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন মিডিয়া থেকে নিজেকে দূরে রাখবেন। রীতিমতো ঘোষণাও দিয়েছিলেন যে সিনেমা করবেন না আর। কিন্তু সিনেমা তিনি ছাড়লেন না। জানালেন, দর্শকদের মানসম্পন্ন কিছু কাজ উপহার দিতেই তিনি ফিরেছেন। এ রকম কিছু কাজে যুক্ত হয়েছেন তিনি। সেগুলো শেষ করে আগামী বছর মিডিয়াকে বিদায় জানাবেন তিনি।

গত ঈদুল আজহার আগে মডেল, অভিনেতা ও প্রযোজক বর মীর মোশাররফ হোসেনকে তালাকের চিঠি পাঠান মুনমুন। তাঁর মা পরামর্শ দিয়ে বলেছিলেন, তিনি যেন মিডিয়া ছেড়ে দেন। মায়ের কথামতো মিডিয়া ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তিনি। মুনমুন বলেন, ‘আম্মু আমাকে বুঝতে পারেন। সে জন্য আম্মুর কথায় আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। তখন আমি খুব ইমোশনাল হয়ে পড়েছিলাম। যে কারণে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম মিডিয়ায় আর কাজ করব না।’ সম্প্রতি সিনেমার শুটিং শুরু করা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘হঠাৎ করেই বেশ কিছু কাজের প্রস্তাব পাই। তখন মনে হয়, কাজগুলো করা উচিত।’ কেন মনে হলো কাজগুলো করা উচিত? তিনি বলেন, ‘এখন যে গল্পগুলো পাচ্ছিলাম, সেগুলো খুবই ভালো। আমার মনে হয়েছে, কিছু ভালো কাজ করে যাওয়া উচিত। একটা প্রজন্ম যেন কাজগুলো দেখতে পারে। বললাম আর চলে গেলাম, বললেই তো আর হয় না। ইন্ডাস্ট্রিতে কিছু ভালো কাজ রেখে যাওয়া প্রয়োজন। কেউ যেন পরে বলে, একজন ভালো আর্টিস্ট ছিল।’

বিজ্ঞাপন
default-image

মুনমুনের ফেসবুক পেজে বেশ কয়েকজন ভক্ত জানিয়েছেন, তিনি যেন এখনই মিডিয়া থেকে বিদায় না নেন। মুনমুন বলেন, ‘আমার ফ্যান, ফলোয়াররা মিডিয়া ছাড়ার সিদ্ধান্তে খুশি নন। তাঁরা অনেকেই বলেছেন, আপু, আপনি তো এখনো শেষ হয়ে যাননি। আপনার তো আরও কাজ করার যোগ্যতা আছে। আপনার নিয়মিত কাজ করা উচিত। তা ছাড়া মিডিয়ায় আমার পরিচিত প্রায় সবাই অনুরোধ করলেন মিডিয়া না ছাড়তে। সবার অনুরোধেই আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে আর একটি বছর কাজ করার পর মিডিয়া ছাড়ব। তখন ব্যবসা বা অন্য পেশায় যাব। আবেগের বশে কোনো সিদ্ধান্ত নিতে চাই না।’

বিবাহবিচ্ছেদের কারণে ‘পাগল প্রেমিক’ ছবিটি আর না–ও করতে পারেন উল্লেখ করে মুনমুন সে সময় জানিয়েছিলেন, তিনি মিডিয়ায় আর কাজ করবেন না। তবে শুভাকাঙ্ক্ষী হিসেবে সাবেক স্বামীর পাশে থাকবেন। মুনমুন সে সময় আরও বলেছিলেন, ‘আমি একাই সন্তান এবং সংসার সামলাতে চাই। সে ফিল্ম সামলাক।’ ‘পাগল প্রেমিক’ ছবির শুটিং শুরু করলে কি তিনি কাজ করবেন সেখানে? মুনমুন জানান, এ ব্যাপারে তাঁর সাবেক স্বামীর টিম এখনো যোগাযোগ করেনি। যদি যোগাযোগ করে, তাহলে কী করবেন? তিনি বলেন, ‘এ ব্যাপারে আমি এখনো ভেবে দেখিনি। জানি না, ছবিটি করব কি না। যোগাযোগ করলে দেখা যাবে।’

বিজ্ঞাপন
default-image

২৬ সেপ্টেম্বর থেকে কক্সবাজারে শুরু হয়েছে ‘আগুন আর কতটুকু পোড়ে’ ছবির শুটিং। ১৯৭১ থেকে ১৯৭৫ সালের বিভিন্ন প্রেক্ষাপট নিয়ে ছবির গল্প। এই ছবিতে অভিনয় করছেন মুনমুন। তিনি জানান, ছবিটি নির্মাণ করছেন রাশেদ মোর্শেদ। কক্সবাজারের পর ছবির বাকি অংশের কাজ হবে বিএফডিসি ও ঢাকার বিভিন্ন জায়গায়। মুনমুন এ ছবির অন্যতম প্রধান চরিত্রের অভিনেত্রী। চরিত্রটি নিয়ে তিনি বলেন, ‘একদম আলাদা প্যাটার্নের একটি আর্টফিল্ম। আমার ক্যারিয়ারে এমন ছবিতে আগে অভিনয় করিনি। এখানে ক্রিয়েটিভকেই প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে।’ তাঁর হাতে রয়েছে আরও বেশ কিছু ছবির কাজ। শিগগিরই সেসব ছবির কাজ শুরু করবেন তিনি। ‘আগুন আর কতটুকু পোড়ে’ ছবিতে আরও অভিনয় করছেন সমু চৌধুরী, রাশেদ মোর্শেদ, রাবিনা বৃষ্টি প্রমুখ।

মন্তব্য পড়ুন 0