বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

অর্থহীনের হয়ে গাইতে হলে শারীরিক প্রস্তুতির জন্য সময় লাগবে, যা এ মুহূর্তে কিছুটা অসম্ভব। তাই প্রায় ১০ বছর পর সুমনের একক গান আসছে। শারীরিক অবস্থা বিবেচনা করে সফট গান দিয়েই ফিরেছেন তিনি। তবে ব্যান্ডের কিছুটা আঁচও গানটিতে থাকবে। এই গানের কো–প্রোডিউসার মোহান, অর্থহীনের সদস্য। গানটি নিয়ে সুমন বলেন, ‘এ গানে কোনো বেস সলো নেই, কোনো ভয়ংকর লিড নেই, ড্রামসের কোনো ক্যারিকেচার নেই। আমাদের মোহানের বাজানো অ্যাকুস্টিক গিটারের ওপর খুব সাদামাটাভাবে আমার গাওয়া এই গান। ভক্তদের কথা ভেবে আমরা বান্দরবান গিয়ে গানটির মিউজিক ভিডিওর শুটিং করেছি।’

default-image

সুমন আরও বলেন, ‘দীর্ঘদিন আমি অসুস্থ কিন্তু তাঁরা (ভক্ত) আমাকে ভুলে যায় নাই। বিভিন্ন সময় আমি হাল ছেড়েছি, কিন্তু তাঁরা হাল ছাড়েননি। দিনের পর দিন আমার জন্য অপেক্ষা করেছে। তিন বছর পর গানে ফিরলাম। সেই গান নিয়ে তাঁদের আগ্রহ আমাকে মুগ্ধ করেছে। তাঁদের ধন্যবাদ ও ভালোবাসা দেওয়া ছাড়া কিছু বলার নাই। তাঁদের একটা কথাই বলব, জীবনে খারাপ সময় আসে। কিন্তু সব সময়, খারাপ সময় থাকে না। আশা নিয়েই আমাদের বাঁচতে হবে।’

default-image

কয়েক বছর ধরে ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করছেন এই গায়ক। এর মধ্যেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় ব্যাংকক হাসপাতাল থেকে ফেরার সময় একটি দুর্ঘটনায় তাঁর স্পাইনাল কর্ডের ক্ষতি হয়। এত বাধা সত্ত্বেও ভেঙে পড়েননি সুমন। বাঁচার অনুপ্রেরণা পেয়েছেন। গানেও সেটিই তুলে ধরেছেন। ‘এটি আমার ধীরে ধীরে বয়স বেড়ে যাওয়ার গান, এটি আমার গত দুই বছরের প্রায় পঙ্গু হয়ে বিছানায় পড়ে থাকার গান, এটি আমার অন্ধকারে ডুবে যাওয়ার গান, রাতের পর রাত প্রচণ্ড ব্যথায় চিৎকার করার গান। পরিশেষে এটি আমার সব বাধা অতিক্রম করে আলোয় ফিরে আসার গান।’ বলেন সুমন। তিনি জানালেন, গানটি আজ রাত ১০টায় বেসবাবা অর্থহীন ইউটিউব চ্যানেল ও অর্থহীনের ফেসবুক পেজে প্রকাশ করা হবে।

ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন