বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আগামী ৫ নভেম্বর মুক্তি পাবে সাদেক সিদ্দিকী পরিচালিত ‘ডাইরেক্ট অ্যাটাক’ ও এফ আই মানিকের ‘এ দেশ তোমার আমার’। অনন্য মামুনের ‘কসাই’ মুক্তি পাবে ১৯ নভেম্বর।

default-image

জাহিদ হোসেনের ‘ছিটমহল’ ও কাজল সাহার ‘অবাস্তব ভালোবাসা’ ছবি দুটি মুক্তির তালিকায় আছে ৩ ডিসেম্বর। একই দিনে মুক্তি পাবে যৌথভাবে সানী সানোয়ার ও ফয়সল আহমেদ পরিচালিত ‘মিশন এক্সট্রিম’ ছবির প্রথম পর্ব। ১০ ডিসেম্বর মুক্তির তালিকায় আছে রেজা হাসমতের ‘জেদি মেয়ে’ ও গৌতম ঘোষ পরিচালিত আমদানির ছবি ‘কালবেলা’।
এ ছাড়া এখনো সিডিউল নেওয়া না হলেও এমন আরও হাফ ডজন ছবি আগামী নভেম্বর ও ডিসেম্বরজুড়ে মুক্তির কথা শোনা যাচ্ছে। তিনটি ছবি মুক্তির জন্য প্রস্তুত করেছেন পরিচালক মুস্তাফিজুর রহমান মানিক।

তিনি জানান, নভেম্বরের শেষে ‘যাও পাখি বলো তারে’ ছবিটি মুক্তি দেওয়ার ইচ্ছা। এর পরপরই ‘স্বপ্ন দেখা রাজকন্যা’ মুক্তি দেবেন। ১৬ ডিসেম্বর ‘আশীর্বাদ’ ছবিটি মুক্তির কথা জানিয়েছেন তিনি।

default-image

এই পরিচালক বলেন, ‘অনেক দিন পর শুক্রবার নতুন ছবি ‘চোখ’ ৩৮টি হলে মুক্তি পেয়েছে। এ কারণে কিছু বন্ধ হল খুলেছে। বিভিন্ন হলে সংবাদ নিয়ে দেখলাম, দর্শকের মধ্যে এখনো করোনার ভীতি কাটেনি। তবে এভাবে প্রতি সপ্তাহে নতুন নতুন ছবি মুক্তি পেলে হলের সংখ্যা বাড়বে, দর্শকও ফিরবেন। প্রত্যাশা আগামী নভেম্বর-ডিসেম্বর নাগাদ করোনার ভয় কেটে সিনেমাপাড়া জেগে উঠবে।’

একই প্রত্যাশা ব্যক্ত করলেন আরেক পরিচালক সৈকত নাসির। তাঁরও তিনটি ছবি মুক্তির অপেক্ষায়। ছবিগুলো ‘তালাশ’, ‘ক্যাসিনো’ ও ‘বর্ডার’। তালাশ ছবিটি নভেম্বর মাসের মাঝামাঝিতে মুক্তি দিতে চান পরিচালক। তিনি বলেন, ‘আশা করছি, আগামী দু-এক মাসের মধ্যে সিনেমায় অনেকটাই গতি ফিরবে। কারণ দীর্ঘদিন নতুন সিনেমার মুক্তি আটকে আছে। আগামী দুই মাসের মধ্যে অনেক নতুন ছবি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে। অনেক বন্ধ হলও খুলবে।’

এই পরিচালক জানান, চলতি বছরেই ‘ক্যাসিনো’ ও ‘বর্ডার’ ছবি দুটি মুক্তি দেওয়া ইচ্ছা আছে।
এদিকে ‘চোখ’ সিনেমাটি দিয়ে প্রায় ১৮ মাস পর মুন্সিগঞ্জের মুক্তারপুরের পান্না সিনেমা হলটি খুলেছে। হল প্রতিনিধি গৌতম গুহ বলেন, ‘সবশেষ হলটিতে শাহেনশাহ ছবিটি প্রদর্শিত হয়েছিল। এত দিন পর ‘চোখ’ দিয়ে আবার খোলা হয়েছে হলটি।’

ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন