বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

অরুণা বলেন, ‘আমাকে ইন্ডাস্ট্রিতে এনেছেন রাজ্জাক কাকু। তিনি, তাঁর পরিবারের সবাই, সব সময় আমার পাশে ছিলেন, আছেন। কাকু অসুস্থ থাকা অবস্থায় সব সময় খোঁজখবর নিয়েছি। কাকুকে রক্ত দিয়েছি। কাকুর পরিবারের সবার সঙ্গে যোগাযোগ আছে। আমাকে মেয়ের মতো দেখতেন কাকু। মারা যাওয়ার আগে বাসায় বলে গিয়েছিলেন, আমাকে মেয়ের মতো দেখতে। কাকু আন্টির কাছে বলেছিলেন, আমার সিনেমায় অভিনয় করবেন। তিনি আমাকে ভীষণ স্নেহ করতেন, এসব বলে আন্টি কাঁদলেন। আমি কী বলব বুঝতে পারছিলাম না। কথাগুলো আমাকেও ভীষণ কষ্ট দিচ্ছিল। চোখের পানি আটকে রাখতে পারছিলাম না। কাকুর হাত ধরেই মিডিয়ায় পথ চলতে শিখেছি। আমার জীবনটাই তো বদলে দিয়েছিলেন কাকু।’

default-image

সিনেমার শুটিং শুরু করার আগে সিনিয়র অভিনেতাদের মধ্যে আলমগীর, ইলিয়াস কাঞ্চন, বাপ্পারাজসহ সমসাময়িক যাঁদের সঙ্গে পর্দা ভাগাভাগি করেছেন, সবার কাছ থেকেই আশীর্বাদ নিয়েছেন অরুণা বিশ্বাস। ‘যাঁদের সঙ্গে প্রথমদিকে কাজ করেছি, ক্যামেরাম্যান মাহফুজ ভাই, পরিচালক শিবলী ভাই, মেকআপম্যান দীপক দাস, তাঁরা আজ কেউ বেঁচে নেই। অথচ আমার প্রথম সিনেমায় তাঁদের নিয়ে কাজ করব, কত পরিকল্পনা ছিল,’ বলেন অরুণা। নায়ক রাজ্জাক বেঁচে থাকলে আপনার সিনেমায় এখন অভিনয় করতেন? এমন প্রশ্নে অরুণা বলেন ‘একশতবার রাজ্জাক কাকু আমার সিনেমায় অভিনয় করতেন। কাকুই আমাকে সিনেমা বানানোর প্রেরণা দিয়েছেন।’

default-image

আজ বৃহস্পতিবার সকালে মানিকগঞ্জের জাবরা গ্রামে শুরু হয়েছে ‘অসম্ভব’ ছবির শুটিং। ইতিমধ্যে করোনাসহ নানা কারণে শুটিং বিলম্বিত হয়েছে। এখন টানা শুটিং করে শেষ করতে চান পরিচালক। তবে, সিনেমায় কে কে অভিনয় করছেন, সেটা এখনই বলতে চাচ্ছেন না। শুধু জানালেন ছোট ও বড় পর্দা মিলিয়ে একঝাঁক অভিনয়শিল্পী রয়েছে। নায়করাজ রাজ্জাকের প্রযোজনা-পরিচালনায় নির্মিত ‘চাঁপাডাঙ্গার বৌ’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিনয়জীবন শুরু করেন অরুণা বিশ্বাস।

ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন