বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

টেলিভিশন নাটকের নন্দিত পরিচালক গিয়াসউদ্দিন সেলিম ‘মনপুরা’ বানিয়ে সবাইকে চমকে দিয়েছিলেন। ঢালিউডের আলোচিত সিনেমা হিসেবে মানুষের মনে জায়গা করে নিয়েছে মনপুরা। দীর্ঘ বিরতির পর ‘স্বপ্নজাল’ বানিয়েও প্রশংসিত হন তিনি। করোনা মহামারি শুরু হওয়ার আগে তিনি শেষ করেন ‘পাপ–পুণ্য’-এর শুটিং। এরই মধ্যে সেন্সর ছাড়পত্রও পায় ছবিটি।

default-image

সেলিম বলেন, ‘শুরুতে সিনেমাটি আমরা দর্শকদের প্রেক্ষাগৃহে দেখাতে চাই। শুরু থেকে প্রযোজকেরও সেই পরিকল্পনা। তাই সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েও অপেক্ষা করছি। শিগগির যদি প্রেক্ষাগৃহ খুলে দেওয়া হয়, সুবিধাজনক একটা সময় দেখে ছবিটি মুক্তির আয়োজন করব।’
‘পাপ–পুণ্য’ ছবিটি প্রযোজনা করেছে ইমপ্রেস টেলিফিল্ম লিমিটেড।

default-image

প্রথম দুটি সিনেমায় প্রেম-ভালোবাসার আড়ালে গিয়াসউদ্দিন সেলিম দেখিয়েছেন বাংলার চিরায়ত রূপ, কুসংস্কার, সাম্প্রদায়িকতা, ক্ষমতাবান ও নিপীড়িত মানুষের দ্বন্দ্ব। কেমন হবে তৃতীয় ছবিটি? ছবির গল্প এখনই বলতে চাননি পরিচালক। শুধু বললেন, ‘মানুষের মৌলিক তাড়নাকেই ফুটিয়ে তুলতে চেয়েছি নতুন মোড়কে। আগে যে দুই ছবি বানিয়েছি, এই ছবি সেগুলো থেকে আলাদা হবে।’

ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন