বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

পূজা আফসোস করে বলেন, ‘আমার খুব খারাপ লাগে, অকারণ কিছু মানুষ সব সময় অন্যের কুৎসা রটিয়ে বেড়ান। অথচ তাঁরাই আবার যখন সামনে থাকেন শুভাকাঙ্ক্ষী সাজেন, আড়াল হতেই কুৎসা রটিয়ে বেড়ান। কিন্তু তাঁরা এসব না করে যদি নিজেদের প্রতি মনোযোগী হতেন, এতে তাঁদের উন্নয়ন যেমন হতো, পরিবারকেও ভালো রাখতে পারতেন।’

default-image

মা–বাবার তাঁর প্রতি অগাধ আস্থা ও বিশ্বাস আছে বলে জানালেন পূজা। তিনি বলেন, ‘ভালো–মন্দ বিবেচনা ও মূল্যবোধের শিক্ষাটা মা–বাবা দিয়েছেন। ছোটবেলা থেকে আমি বিনোদন অঙ্গনে যেহেতু কাজ করছি, তাই আমাকে অন্য সব বন্ধুর চেয়ে আলাদা হয়ে বেড়ে উঠতে হয়েছে। পড়াশোনা ও বিনোদন অঙ্গনের কাজ সমন্বয় করা এবং আত্মবিশ্বাস নিয়ে পথচলা তাঁদের কাছ থেকেই শিখেছি। আমাকে তো তাঁরাই তৈরি করেছেন, তাই তাঁরা আমার প্রতি খুবই কনফিডেন্ট। তাই তো যেকোনো নেতিবাচক বিষয় আমার সামনে এলে তাঁদের জানাই। সুন্দর পরামর্শ দিয়ে তাঁরা আমাকে সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়ার পরামর্শ ও উৎসাহ দেন।’

পূজা এরই মধ্যে শেষ করেছেন তাঁর উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা। গত ৩০ ডিসেম্বর তাঁর পরীক্ষা শেষ হয়েছে। এদিকে ৭ জানুয়ারি মুক্তি পাচ্ছে তাঁর নতুন চলচ্চিত্র ‘শান’। ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে মুক্তি পায় এই অভিনেত্রীর ‘প্রেম আমার টু’ চলচ্চিত্র। নতুন চলচ্চিত্র মুক্তি উপলক্ষে বছরের প্রথম দিন থেকে ব্যস্ত সময় শুরু পূজার।

default-image

কেন মনে করছেন বছরটা আপনার? এমন প্রশ্নে পূজা বলেন, ‘এই বছর আমার কয়েকটি ভালো মানের চলচ্চিত্র মুক্তি পাবে। শান দিয়ে সেই যাত্রা শুরু হচ্ছে। এরপর মুক্তির জন্য পাইপলাইনে আছে গলুই, জ্বীন এবং হৃদিতা। প্রতিটি চলচ্চিত্রে আমাকে নানাভাবে দেখতে পাবেন দর্শকেরা।’ পূজা বলেন, এর বাইরে আরও কয়েকটি ভিন্নধর্মী চলচ্চিত্রের শুটিং শুরুর কথা রয়েছে।

ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন