বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ এ সময় চলচ্চিত্রটি নির্মাণের সঙ্গে যুক্ত সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার আজকে ৭৫তম জন্মদিনে তাঁর লেখা গ্রন্থ অবলম্বনে নির্মিত প্রথম সেন্সর ছাড়পত্রপ্রাপ্ত অ্যানিমেশন মুভি “মুজিব আমার পিতা”র মুক্তি জাতীয় চলচ্চিত্র অঙ্গনে একটি মাইলফলক। অ্যানিমেটেড মুভি আরও হয়েছে, কিন্তু সেন্সর ছাড়পত্রপ্রাপ্ত মুভি এটিই প্রথম।’

default-image

চলচ্চিত্রকে একটি ক্রমবর্ধমান মাধ্যম হিসেবে উল্লেখ করেন তথ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, প্রদর্শনের মাধ্যম থেকে শুরু করে নির্মাণমাধ্যম—সবকিছুই কিন্তু পরিবর্তিত হচ্ছে। কারণ, পৃথিবীতে গত দুই দশকে ব্যাপক পরিবর্তন হয়েছে। সেই সঙ্গে চলচ্চিত্রেরও অনেক পরিবর্তন হয়ে গেছে। সেই প্রেক্ষাপটে এই অ্যানিমেশন মুভি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ বলেন, ‘সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড না থাকলে আমাদের তরুণেরা বিপথে যায়। ২০১৩-১৪-১৫ সালে দেখেছি, যেসব জেলায় সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের ব্যাপকতা ছিল, সেখানে মৌলবাদী হাঙ্গামা বেশি হয়নি। আর যেসব জেলায় কম ছিল, সেখানে মৌলবাদ মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। সে জন্য সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের কোনো বিকল্প নেই এবং সেটির বড় অনুষঙ্গ হচ্ছে চলচ্চিত্র।’

জুনাইদ আহমেদ বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা তাঁর দৃষ্টিতে তাঁর পিতাকে কীভাবে দেখেছেন, সেটা নিয়েই তিনি বইটি লিখেছেন এবং সেটার ওপর ভিত্তি করে ছবিটি নির্মাণ করা হয়েছে। আশা করি, এটি জাতির সবাইকে অনুপ্রাণিত করবে।’

ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন