default-image

‘সেন্সর বোর্ডের সদস্য হিসেবে আমাকে অনেক সিনেমা দেখতে হয়। নিরবের সিনেমাও আমি দেখেছি। আমার সিনেমার কাঙ্ক্ষিত চরিত্রের সঙ্গে মানানসই বলেই শেষ পর্যন্ত নিরবকেই চূড়ান্ত করেছি।’ গতকাল রোববার সন্ধ্যায় প্রথম আলোকে তেমনটা জানালেন একসময়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী রোজিনা। শিগগিরই নতুন ছবি পরিচালনা করবেন তিনি। ‘ফিরে দেখা’ নামের ওই ছবি সরকারি অনুদানে নির্মিত হতে যাচ্ছে।

রাজবাড়ী জেলায় জন্ম রোজিনার। সেখানেই বেড়ে ওঠা। একসময় ঢাকায় এসে চলচ্চিত্রে নাম লেখান, জনপ্রিয়তা পান। এখনকার তরুণ অভিনেতা নিরবের সঙ্গে পরিচয়ের পর জানতে পারেন, তিনিও রাজবাড়ীর ছেলে। এমনিতে নিজের ছবির জন্য তাঁকে মনে মনে ঠিক করে রেখেছিলেন। পছন্দের অভিনেতা একই এলাকার জানার পর আরও ভালো লাগে বলে রোজিনার। তিনি বলেন, ‘এই সময়ের তরুণ অভিনয়শিল্পীদের বেশির ভাগের ছবিই আমার দেখা। কারণ, আমাকে সেন্সর বোর্ডের ছবি দেখতে হয়। অনেককেই আমার সম্ভাবনাময় মনে হয়। আমি মনে করি, সুযোগ পেলে তাঁরা নিজেদের মেলে ধরতে পারবেন। নিরবকে দেখেও তেমনটাই মনে হয়। এরপর কথাবার্তা বলে তো আরও ভালো লাগে। তাই আমার ছবির জন্য নায়ক হিসেবে ওকেই চূড়ান্ত করি।’

বিজ্ঞাপন
default-image

এদিকে পরিচালক রোজিনার ছবিতে অভিনয় করতে পারছেন জেনে আনন্দিত নিরব। একে বিরাট সৌভাগ্যও মনে করছেন তিনি। এর আগে কিংবদন্তিতুল্য অভিনয়শিল্পী রাজ্জাক পরিচালিত ‘মন দিয়েছি তোমাকে’ সিনেমায় অভিনয় করেছিলেন নিরব। ২০১২ সালে মুক্তি পাওয়া ওই ছবিতে নিরবের নায়িকা ছিলেন সাহারা। এবারে আরেক তারকা অভিনয়শিল্পী রোজিনার ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ পাওয়া অভিনয়জীবনের অন্যতম বড় অর্জন বলে মনে করছেন তিনি। নিরব বলেন, ‘আমার বাড়ি রাজবাড়ী জানার পর রোজিনা ম্যাডামের সঙ্গে চমৎকার একটা সম্পর্ক তৈরি হয়ে যায়। ছোটবেলা থেকে তাঁর সিনেমা কত যে দেখেছি, বলে বোঝাতে পারব না। এবার তাঁরই পরিচালনায় তাঁর সহশিল্পী হিসেবে কাজ করতে যাচ্ছি! শুরুতে যখন তিনি ছবিটি নিয়ে কথা বলছিলেন, তখন অবিশ্বাস্য মনে হচ্ছিল। চেষ্টা করব, তিনি আমার ওপর যে আস্থা রেখেছেন, তার প্রতিদান দিতে।’

‘ফিরে দেখা’ সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত সিনেমা। ২০১৯-২০ অর্থবছরে রোজিনা এ সিনেমা নির্মাণের জন্য অনুদান পেয়েছেন। তিনি বলেন, ‘“ফিরে দেখা” নির্মিত হবে রোজিনা ফিল্মসের ব্যানারে। এই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকে এর আগে “দোলনা”, “জীবনধারা”, “রাধাকৃষ্ণ”সহ অনেক সিনেমা করেছি। তা ছাড়া রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়, হুমায়ূন আহমেদ, জাফর ইকবালের গল্প নিয়ে নাটক তৈরি করেছি এবং প্রযোজনাও করেছি।’

default-image

পরিচালনার পাশাপাশি মুক্তিযুদ্ধের সময়ের গল্প নিয়ে ‘ফিরে দেখা’ সিনেমার কাহিনি, চিত্রনাট্য লিখেছেন রোজিনা। গোয়ালন্দ উপজেলার কুমড়াকাধি গ্রামের একটি পরিবার ও রোজিনার স্মৃতি থেকে কিছু ঘটনা নিয়ে তৈরি করা হয়েছে ছবির গল্প। রোজিনা বলেন, ‘গোয়ালন্দ আমার নানাবাড়ি। যুদ্ধের সময় আমি সেখানেই ছিলাম। বোঝার মতো বয়স ছিল তখন। সিনেমায় আমার দেখা যুদ্ধের সময়ের কিছু ঘটনাও থাকবে।’ এই অভিনেত্রী জানান, গল্পে যুদ্ধকালীন গোয়ালন্দের নদী ও এর আশপাশের গ্রাম আছে। গল্পের এলাকাতেই ছবির শুটিং হবে। মার্চের শুরুতে এই ছবির শুটিং শুরু হবে। ছবিতে রোজিনার বিপরীতে ইলিয়াস কাঞ্চনের অভিনয়ের কথা রয়েছে।

বিজ্ঞাপন
ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন