‘ঢাকা আন্তর্জাতিক মোবাইল চলচ্চিত্র উৎসব’-এর সংবাদ সম্মেলনে আয়োজকেরা
‘ঢাকা আন্তর্জাতিক মোবাইল চলচ্চিত্র উৎসব’-এর সংবাদ সম্মেলনে আয়োজকেরাসংগৃহীত

বিভিন্ন দেশের ৩৬টি নির্বাচিত চলচ্চিত্র নিয়ে শুরু হচ্ছে ‘ঢাকা আন্তর্জাতিক মোবাইল চলচ্চিত্র উৎসব’-এর (ডিআইএমএফএফ) সপ্তম আসর। আয়োজকেরা জানান, শুক্র ও শনিবার (২৬-২৭ ফেব্রুয়ারি) অনুষ্ঠিত হবে এ উৎসব। এবারের আসরের থিম ‘রিকশা পেইন্ট’।
বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে উৎসবের বিস্তারিত জানানো হয়। এতে আয়োজক হিসেবে সাংবাদিকদের সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন ডিআইএমএফএফের জনসংযোগ কর্মকর্তা ও সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজার ফাইকা হোসেন, ফেস্টিভ্যাল ডিরেক্টর রাফি আহমেদ ও কো-অর্ডিনেটর জেরিন তাসনিম তাহসিন। জেরিন জানান, উৎসবটিকে কেন্দ্র করে আয়োজন করা হয়েছে দুটি মাস্টারক্লাসের। প্রথমটির বিষয় ‘স্মার্টফোনে সৃজনশীলতা প্রকাশ’। ২৬ ফেব্রুয়ারি রাত আটটায় জুম অ্যাপের মাধ্যমে এ ক্লাস নেবেন যুক্তরাজ্যের লেখক ও প্রশিক্ষক স্টিফেন কুইন।
উৎসবের দ্বিতীয় দিন ২৭ ফেব্রুয়ারি দুপুর ১২টায় একই মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হবে ‘মোবাইল মিডিয়া প্রোডাকশনের যুগে স্বতন্ত্র চলচ্চিত্র নির্মাতাদের ক্ষমতায়ন করা’ বিষয়ে ক্লাস। এটি নেবেন পাকিস্তানের মোবাইল চলচ্চিত্র নির্মাতা ও প্রশিক্ষক আয়াজ খান।

বিজ্ঞাপন

সপ্তম আসরে অংশ নেওয়ার জন্য চলচ্চিত্র জমা দেওয়ার সময়সীমা ছিল ২০২০ সালের ৩০ এপ্রিল থেকে ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত। এ সময় ৩০টি দেশ থেকে মোট ১৭৮টি চলচ্চিত্র জমা পড়েছিল। সেগুলোর ভেতর থেকে ৩৬টি নির্বাচিত চলচ্চিত্রের নামসহ পরিচালকের নাম ও স্ক্রিনিংয়ের সময় জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।
এবার স্ক্রিনিং বিভাগে প্রথমবারের মতো ‘ডিআইএমএফএফ বেস্ট ফিল্ম অ্যাওয়ার্ড’ যুক্ত করা হয়েছে। যে কেউ এতে অংশ নিতে পেরেছেন। এতে চলচ্চিত্রের দৈর্ঘ্য নির্ধারিত ছিল না। কম্পিটিশন বিভাগে শুধু বিশ্ববিদ্যালয়পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা চলচ্চিত্র জমা দিয়েছেন। এ বিভাগ থেকে সেরা চলচ্চিত্রটি পাবে ‘সিনেমাস্কোপ বেস্ট ফিল্ম অ্যাওয়ার্ড’।

default-image

প্রথম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীরা ‘ওয়ান মিনিট’ বিভাগের জন্য চলচ্চিত্র জমা দিয়েছে। এ বিভাগের সেরা চলচ্চিত্র পাবে ‘ইউল্যাব ইয়াং ফিল্মমেকার অ্যাওয়ার্ড’। কম্পিটিশন বিভাগের জন্য চলচ্চিত্রের দৈর্ঘ্য সর্বোচ্চ ১০ মিনিট। আর ওয়ান মিনিট বিভাগের জন্য টাইটেল ও ক্রেডিট লাইন মিলিয়ে ১ মিনিট দৈর্ঘ্যের। প্রতিটি চলচ্চিত্রের সঙ্গে ইংরেজি সাবটাইটেল যুক্ত থাকা বাধ্যতামূলক ছিল।


ডিআইএমএফএফ ২০২১–এর বিচারকাজ সম্পন্ন করেছেন রতন কুমার পল, তানহা জাফরিন ও অমিতাভ রেজা চৌধুরী। এমনটাই জানিয়েছেন ফেস্টিভ্যাল ডিরেক্টর রাফি আহমেদ।

default-image

উৎসবের সমাপনী অনুষ্ঠানে ভেন্যু পার্টনার হিসেবে থাকছে স্টার সিনেপ্লেক্স, যেখানে দেখানো হবে শেষ দিনের ১৭টি ছবি। একই সঙ্গে দেওয়া হবে পুরস্কার। আর উৎসবের প্রথম দিনে দেখানো হবে ১৯টি ছবি। যাঁরা এতে অংশ নেওয়ার জন্য এর মধ্যে নিবন্ধন করেছেন, তাঁদের কাছে জুমের লিংক চলে যাবে। আর সবার জন্য আয়োজকদের ফেসবুক পেজে পুরো উৎসব লাইভ দেখানো হবে।
ইউল্যাবের অন্যতম শিক্ষানবিশ প্রোগ্রাম ‘সিনেমাস্কোপ’-এর শিক্ষার্থীদের অধীন আয়োজিত হচ্ছে ডিআইএমএফএফ।

বিজ্ঞাপন
ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন