নব্বইয়ের দশকের জনপ্রিয় অভিনেত্রী লিমার আজ জন্মদিন। কিন্তু আজ দিনটি উদ্‌যাপন করবেন না তিনি। ‘প্রেমগীত’ সিনেমাটি দিয়ে জনপ্রিয়তা পাওয়া এই অভিনেত্রী সালমান শাহর নায়িকাও হয়েছিলেন। ১৯৯৮ সালের শেষ দিকে হঠাৎ অভিনয় ছেড়ে দেন লিমা। ক্যারিয়ারের ৮ বছরে তাঁর ঝুলিতে জমা হয় ২৫টি সিনেমা।

বিজ্ঞাপন
default-image

মহামারি ও পারিবারিক কারণে মানসিকভাবে ভালো নেই লিমা। বাবার সঙ্গে থাকেন তিনি। বাড়ির লোকজন ঘর থেকে তেমন বের হন না। লিমা জানান, করোনার শুরু থেকেই তাঁরা ঘরবন্দী। মেজ বোনের ছোট্ট মেয়েটির নিরাপত্তার কারণে একটু বেশি সাবধান থাকছেন তাঁরা। এ ছাড়া তাঁদের মোহর আলীরও বয়স বেড়েছে। তিনিও সাবধানতার অন্যতম কারণ। জন্মদিন প্রসঙ্গে লিমা বলেন, ‘মনটা ভালো নেই। অন্য আর দশটা দিনের মতোই কাটছে। ছোট বোন ও বাসার বাচ্চারা শুভেচ্ছা জানিয়েছে। আলাদা করে কোনো আয়োজন নেই, সেই বয়সও নেই। করোনা পরিস্থিতির কারণে বাড়িতে কেকটেক আনতে নিষেধ করেছি। বেঁচে থাকলে আরও অনেক জন্মদিন পালন করা যাবে। বোনের বাচ্চারা আছে, তাদের সঙ্গে দিনটি কাটাচ্ছি।’

বিটিভির অঙ্কুর অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শিল্পাঙ্গনে যাত্রা শুরু করে ৯ বছরের ছোট্ট লিমা। ক্রমেই অভিনয়, নাচ, গানে ভালো করতে থাকেন তিনি। তারপর যুক্ত হন সিনেমায়।
default-image

শামীমা আলী লিমার জন্ম ২২ সেপ্টেম্বর ১৯৭৯, কুমিল্লার দাউদকান্দিতে। তিনি বেড়ে উঠেছেন ঢাকায়। তিন বোনের মধ্যে লিমা বড়। শৈশব থেকেই অভিনয় শুরু করেন তিনি। ১৯৭২ সালে ঢাকায় ব্যবসা শুরু করেন তাঁর মুক্তিযোদ্ধা বাবা মোহর আলী। শিল্পমনা মানুষ তিনি। মোহাম্মদপুরে থাকাকালীন বাংলাদেশ টেলিভিশনের প্রকৌশলী ‘কুট্টি ভাই’য়ের সঙ্গে পরিচয় হয়। তাঁর পরামর্শেই মেয়েকে বিটিভির অঙ্কুর অনুষ্ঠানে নিয়ে যান বাবা মোহর আলী। অঙ্কুরের মাধ্যমে শিল্পাঙ্গনে যাত্রা শুরু করে ৯ বছরের ছোট্ট লিমা। ক্রমেই অভিনয়, নাচ, গানে ভালো করতে থাকেন তিনি। তারপর যুক্ত হন সিনেমায়।

বিজ্ঞাপন
লিমার ক্যারিয়ার বদলে দেয় নব্বইয়ের দশকের ছবি ‘প্রেমগীত’। ১৯৯৩ সালে মুক্তি পায় ছবিটি। দেলোয়ার জাহান ঝন্টুর এ ছবির পরই ব্যস্ততা বেড়ে যায় লিমার। আর এ ছবি দিয়ে জনপ্রিয়তা পান অভিনেতা ওমর সানীও। সেই ছবির ‘আমার সুরের সাথি আয় রে’ গানটি এখনো অনেকেরই মনে আছে।
default-image

নায়িকা হিসেবে ঢালিউডে লিমার আত্মপ্রকাশ ১৪ বছর বয়সে, কমল সরকার পরিচালিত ‘সুখের আগুন’ ছবিতে। ব্যবসায়িকভাবে সফল না হলেও ছবিতে লিমার অভিনয় ভালো লেগে যায় আরেক চলচ্চিত্র নির্মাতা দেলোয়ার জাহান ঝন্টুর। ১৯৯৩ সাল থেকে এই পরিচালকের সিনেমায় কাজ করতে শুরু করেন লিমা। টানা ৮ বছরে ২৫টির মতো ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি, যার বেশির ভাগ ছবিই ছিল ব্যবসাসফল। লিমা বলেন, ‘আমি কখনো ভাবিনি এত খ্যাতি আমি সিনেমা থেকে পাব।’

default-image

লিমার ক্যারিয়ার বদলে দেয় নব্বইয়ের দশকের ছবি ‘প্রেমগীত’। ১৯৯৩ সালে মুক্তি পায় ছবিটি। দেলোয়ার জাহান ঝন্টুর এ ছবির পরই ব্যস্ততা বেড়ে যায় লিমার। আর এ ছবি দিয়ে জনপ্রিয়তা পান অভিনেতা ওমর সানীও। সেই ছবির ‘আমার সুরের সাথি আয় রে’ গানটি এখনো অনেকেরই মনে আছে। ঢাকার চলচ্চিত্রজগতে লিমা তখন জনপ্রিয় নায়িকা। সমান তালে অভিনয় করেছেন তখনকার জনপ্রিয় তারকা সালমান শাহ, ওমর সানী, জসীম, বাপ্পারাজ, অমিত হাসান, রুবেলের মতো অভিনেতাদের সঙ্গে। শুটিং নিয়ে ভীষণ ব্যস্ত এই নায়িকা হঠাৎ চলে যান সবার চোখের আড়ালে। তখনকার কথা মনে করে লিমা জানান, একসঙ্গে অনেকগুলো ছবির কাজ তড়িঘড়ি করে শেষ করতে হয়েছিল তাঁকে। তারপর নীরবে সিনেমা থেকে বিদায় নেন লিমা।

মন্তব্য পড়ুন 0