পার্থ বড়ুয়া অভিনীত ছবিটির নাম ‘মেইড ইন চিটাগং’। ১৮ নভেম্বর চট্টগ্রামের দুই প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে ছবিটি। চট্টগ্রামের আঞ্চলিক ভাষায় কমেডি ধাঁচে ছবিটি তৈরি করা হয়েছে। ছবিটির পরিচালক ইমরাউল রাফাত।

‘মেইড ইন চিটাগং’ চলচ্চিত্র মুক্তির খবরে বেশ রোমাঞ্চিত পার্থ বড়ুয়া। তিনি বলেন, ‘পুরোপুরি আঞ্চলিক ভাষায় চলচ্চিত্র তৈরির ক্ষেত্রে একটা বড় চ্যালেঞ্জ ছিল। আমরা সবাই সেই চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করেছি। সিনেমাপ্রেমীদের জন্য একটি চমৎকার ছবি বানাতে পেরেছি। আমরা সবাই উৎসবের আমেজে পুরো শুটিং সেরেছি। দর্শকেরা যে দারুণ কিছু উপহার পেতে যাচ্ছেন, এটা নিশ্চিত।’

উল্লেখ্য, ২০১২ থেকে ২০১৪—তিন বছরের দুই ঈদে ‘মেইড ইন চিটাগং’ নাটকের দুটি করে পর্ব প্রচারিত হয়। নাটকটি জনপ্রিয়তা পায়। ব্যান্ড সংগীতের জনপ্রিয় শিল্পী পার্থ বড়ুয়া ও লাক্স তারকাখ্যাত অভিনয়শিল্পী অপর্ণা ঘোষ এ নাটকে অভিনয় করে বেশ জনপ্রিয় হন। তিন বছরে নাটকের ছয় পর্ব প্রচারের পর শোনা যায়, এ নাটকের সঙ্গে যুক্ত যাঁরা, তাঁরা চট্টগ্রামের ভাষায় একটি চলচ্চিত্র বানাবেন। যত দিনে ছবির কাজ শেষ হয়েছে, তত দিনে পেরিয়ে গেছে সাত বছর।

পরিচালক ইমরাউল রাফাত বলেন, ‘আমরা বলেছিলাম, চট্টগ্রামের আঞ্চলিক ভাষায় চলচ্চিত্র বানাব। অবশেষে তা করতে পেরেছি। এখন চট্টগ্রামের দুটি প্রেক্ষাগৃহে ছবিটি মুক্তি পেতে যাচ্ছে। পাশাপাশি দেশের বিভিন্ন স্থানে ছবিটির বিশেষ প্রদর্শনী করার পরিকল্পনা রয়েছে।’ পরিচালক জানান, এ চলচ্চিত্রে যাঁরা অভিনয় করেছেন, সবাই চট্টগ্রামের; একমাত্র সাজু খাদেম ছাড়া।

রাফাত বলেন, ‘চলচ্চিত্রে নোয়াখালীর একটা চরিত্র ছিল। তাই সাজু ভাইকে কাস্ট করা। বরাবরের মতো এবারও তিনি আমাদের বিশ্বাসের শতভাগ প্রতিদান দিয়েছেন।’
‘মেইড ইন চিটাগং’ চলচ্চিত্রের প্রধান কয়েকটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন পার্থ বড়ুয়া, অপর্ণা ঘোষ, চিত্রলেখা গুহ, মুকিত জাকারিয়া, নাসিরউদ্দিন খান, হিন্দোল রায়, প্রিয়া মৌলি প্রমুখ। প্রেক্ষাগৃহে মুক্তির মাসখানেকের মধ্যে ছবিটি একটি ওটিটি প্ল্যাটফর্মে ছাড়া হবে।