শুক্রবার যমুনা ব্লকবাস্টার ও লায়ন সিনেমাসে মুক্তি পেয়েছে ‘দেশান্তর’। সিনেমায় অন্নপূর্ণা চরিত্রে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়িকা মৌসুমী। দেশভাগের সময় আশপাশের অনেকেই চলে গেলেও যিনি দেশেই থেকে যান। মৌসুমীর মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন এই টাপুর। সিনেমায় টাপুরের সাবলীল অভিনয়, বাচনভঙ্গি, সংলাপ দর্শকদের মন কেড়েছে।

বাঁধন এই প্রসঙ্গে একটি ভিডিও বার্তায় বলেন, ‘গল্পে টাপুরের বাবার চরিত্রে অভিনয় করেছেন আহমেদ রুবেল। বাবার সঙ্গে টাপুরের যে ইন্টারেকশন, এটা আমাকে মুগ্ধ করেছে। দেশভাগের একটা সময় বাবা মেয়েকে এভাবে প্রাধান্য দিচ্ছেন, তার সিদ্ধান্তকে সম্মান দিচ্ছেন, মেয়েকে স্বাধীনভাবে বেড়ে উঠতে সহায়তা করছেন, সিনেমার গল্পের কিছু বিষয়ে টাপুরের স্ট্রং সিদ্ধান্তগুলো একদমই মানানসই ছিল।’
‘দেশান্তর’ সিনেমা দিয়ে এই প্রথম বড় পর্দায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় অভিনয় করলেন রোদেলা টাপুর। এই টাপুর অভিনেত্রী গোলাম ফরিদা ছন্দার মেয়ে।

১৯৪৭ সালের দেশভাগের প্রেক্ষাপটে লেখা নির্মলেন্দু গুণের উপন্যাস ‘দেশান্তর’ অবলম্বনে একই নামে সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন আশুতোষ সুজন। সিনেমায় উঠে এসেছে দেশপ্রেম ও নারী জাগরণের গল্প। সিনেমা মুক্তির পর থেকে ইয়াশ রোহান ও টাপুরের রসায়ন নিয়ে আলোচনা চলছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। অনুদানের এই সিনেমায় অন্যান্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন মামুনুর রশীদ, মোমেনা চৌধুরী, শুভাশীষ ভৌমিকসহ আরও অনেকে।