কুইন্স ওয়ার্ল্ড ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের আর্টিস্টিক ডিরেক্টর প্রেস্টন ক্যাটোর ‘আদিম’-এর প্রশংসা করেন। প্রেস্টন ক্যাটোর বলেন, ‘আমার জীবনে এ রকম কিছু আর আগে কখনো দেখিনি। এই উৎসবে অনেকগুলো সিনেমা দেখেছি। তবে তার মধ্যে এটি এত বাস্তবিক যে আত্মার সঙ্গে গেঁথে যায় প্রতিটি মুহূর্ত। বদলে যাওয়া এক দেশের জীবনের গল্প। মানুষগুলো এত জীবন্ত! জীবন ও মৃত্যু মিশে আছে সেখানে।’

প্রেস্টন ক্যাটোর মুখে নিজের ছবির প্রশংসা শুনে উচ্ছ্বসিত যুবরাজ শামীম বলেন, ‘“আদিম” নিয়ে ফেস্টিভ্যালের আর্টিস্টিক ডিরেক্টর প্রেস্টন ক্যাটোর মূল্যায়ন আমাকে বিশেষভাবে অনুপ্রাণিত করেছে। ছবি রিলিজের আগে এমন অর্জন, দেশের মানুষের সামনে “আদিম” নিয়ে হাজির হতে আমাকে আরও বেশি উদ্দীপ্ত করেছে।’

পরিচালক যুবরাজ নিউইয়র্কে যাওয়ার কথা থাকলেও ভিসা না পাওয়ায় তিনি যেতে পারেননি। এ নিয়ে তাঁর আক্ষেপ রয়েছে। শুরুতে অর্থের অভাবে উৎসবে ছবিটি প্রদর্শনের জন্য জমা দিতে পারছিলেন না। পরে কর্তৃপক্ষের ছবিটি ভালো লাগায় তারা সাবমিশন ফি মওকুফ করে দেয়। সময়ের মধ্যে ছবিটি জমা দিতে না পারলেও ছবির গল্প মনে ধরায় সময়ের পরও উৎসব কর্তৃপক্ষ ছবিটি গ্রহণ করে।

১ থেকে ৬ নভেম্বর পর্যন্ত চলেছে কুইন্স ওয়ার্ল্ড ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল। এর মধ্যে ‘আদিম’-এর একটি প্রদর্শনী হয়েছে শহরের কুইন্স থিয়েটারে, অন্যটি মিউজিয়াম অব দ্য মুভিং ইমেজে। বাংলাদেশ সময় আজ ভোরে ‘আদিম’ প্রদর্শিত হয়।