বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অভিনেতা হিসেবে আসাদুজ্জামান নূরের অনন্যতা কোথায়?

অভিনয়শিল্পী হিসেবে নয়, একজন সাধারণ মানুষের দৃষ্টিতে যদি ভাবি, এটা বলতে পারি ‘বহুব্রীহি’র আনিস, ‘অয়োময়’–এর ছোট মির্জা এবং ‘কোথাও কেউ নেই’ নাটকের বাকের—তিনটি চরিত্রের দিকে তাকালেই বুঝতে পারব, তিনটি চরিত্রের জন্য তিনিই উপযুক্ত। তিনটিই কিন্তু ভিন্নধর্মী চরিত্র। অভিনয়ে তিনি যে অনন্য, এসব দেখলে বোঝা যায়। এটাই তাঁর বৈশিষ্ট্য। এমন নয় যে পর্দায় তাঁকে দেখলে আসাদুজ্জামান নূরই মনে হয়, তাঁকে আসলে বাকের ভাই, ছোট মির্জাই মনে হয়। প্রতিটি চরিত্রেই যাঁকে উপযুক্ত মনে হয়, তিনি একজন শক্তিশালী অভিনেতা।

default-image

মানুষ হিসেবে আসাদুজ্জামান নূর আপনার দৃষ্টিতে কেমন?

আসাদুজ্জামান নূরকে আমি অনেক আগে থেকেই চিনি, হোক তা কাজের জন্য বা অভিনয়ের জন্য। মানুষ হিসেবে তাঁরা এমন একটা জায়গায় পৌঁছে গেছেন—তাঁরা হচ্ছেন পিতৃতুল্য, তাঁরা হচ্ছেন শিক্ষক, যেকোনো বিপদে–আপদে তাঁদের কথাই মনে হয়। মানুষ হিসেবে আলাদা করে বলা সম্ভব নয়। তাঁকে আমার পরিবারেরই একজন মনে হয়।

default-image

আসাদুজ্জামান নূরের কাছে আপনার প্রত্যাশা কী?

যদিও দুটো মাধ্যমকে এক করা ঠিক নয়, তারপরও বলছি, তাঁদের হাত ধরে আমরা মঞ্চনাটকে এত দূর আসতে পেরেছি। আসাদুজ্জামান নূরের কাছে আমার প্রত্যাশা এবং অনুরোধ—তাঁদের মধ্যে যাঁরা অগ্রজ আছেন, তাঁরাও একটু চেষ্টা করবেন কি—মঞ্চকে সাধারণ মানুষের কাছাকাছি নিয়ে আসবেন কি? আমরা যারা অনুজ, তারা তাঁদের সঙ্গে আছি এবং থাকব।

আলাপন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন