default-image
১৯৭১ সেই সব দিন ছবিতে কাজের মধ্য দিয়ে বড় পর্দায় নাম লিখলেন সানজিদা প্রীতি। ছবিতে তাঁর অংশের কাজ প্রায় শেষের পথে। পাশাপাশি মৃধা ভার্সেস মৃধা নামে আরও একটি ছবিতে কাজ শুরু করছেন তিনি। নিয়মিত মঞ্চে কাজ করলেও বেছে বেছে কাজ করেন টেলিভিশন নাটকে। আজ ঢাকার জাতীয় নাট্যশালার মূল মঞ্চে প্রদর্শিত হবে তাঁর অভিনীত খোয়াবনামা নাটকটি। এসব নিয়ে কথা হলো তাঁর সঙ্গে।

অনেক দিন ধরেই ছোট পর্দায় অভিনয় করছেন। বড় পর্দায় অভিনয়ের সিদ্ধান্ত নিতে এত দেরি হলো কেন?

অনেক দিন থেকেই সিনেমায় কাজের প্রস্তাব ছিল। কিন্তু ব্যাটে–বলে মেলেনি, সে জন্য করা হয়নি। গল্প শুনে ও নিজের চরিত্র সম্পর্কে জেনেই ১৯৭১ সেই সব দিন ছবিতে কাজের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করেছি।

চরিত্রটি এ সময়ের না। নিজের ভেতর ধারণ করতে বেগ পেতে হয়েছে কি?

আমি মনে করি, চরিত্র যে সময়েরই হোক না কেন, তা উপযুক্তভাবে তুলে আনা কঠিন। হৃদি হক এ ছবির পরিচালক। চিত্রনাট্যও তাঁর লেখা। চিত্রনাট্য অনেক সুন্দর হয়েছে। চরিত্রটি আত্মস্থ করতে নিজের প্রস্তুতির পাশাপাশি পরিচালকও সহযোগিতা করছেন। তাই চরিত্রটি ফুটিয়ে তুলতে সহজ হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

‘মৃধা ভার্সেস মৃধা’ ছবির কাজও করছেন। অগ্রগতি কেমন?

গত বছরের ডিসেম্বরে ১৯৭১ এই সব দিন ছবির প্রথম ধাপের কাজ করেছি। দ্বিতীয় ধাপ শেষ করেছি এ বছরের ফেব্রুয়ারিতে। দুই ধাপের শুটিং ঠাকুরগাঁওয়ে হয়েছে। বাকি অংশের শুটিং সিলেট অথবা মানিকগঞ্জে হতে পারে। পরিচালক এখনো শিডিউল নেননি। আর মৃধা ভার্সেস মৃধা ছবির দুই দিন শুটিং করেছি।

default-image

ওয়েব সিরিজ ‘তাকদীর’ আলোচিত হয়েছে। আপনি সাংবাদিক চরিত্রে অভিনয় করেছেন। এ চরিত্রে অভিনয় করে দর্শক প্রতিক্রিয়া কেমন ছিল?

শুধু আমার চরিত্র নয়, পুরো সিরিজটি নিয়েই দর্শকদের আগ্রহ দেখেছি। সেই জায়গা থেকে নিজের চরিত্রের জন্য সন্তুষ্টির জায়গাটাও ভালো ছিল। সত্যি কথা বলতে, কাজটি করার সময়ই বুঝেছিলাম ভালো কিছু হতে যাচ্ছে। পুরো কাজটিই দারুণ গোছানো ছিল, যা এখন বেশির ভাগ কনটেন্ট তৈরিতে খুব একটা দেখা যায় না।

পূর্বপ্রস্তুতি, বড় বাজেট হলেই কি ভালো কনটেন্ট তৈরি সম্ভব?

হতেও পারে। তবে পূর্বপ্রস্তুতি, বিশেষ করে লুক, গল্প ও চিত্রনাট্য নিয়ে অনুশীলনটা ভালো কাজ করার ক্ষেত্র খুবই জরুরি। আবার বড় বাজেট হলেই যে ভালো কাজ হবে, তা নয়। গল্পটা ভালো হতে হবে। উপযুক্ত মানুষকে কাজে লাগাতে হবে। তাহলেই ভালো কনটেন্ট তৈরি হবে।

default-image

অনেক দিন পর মঞ্চে আপনার ‘খোয়াবনামা’ নাটকের প্রদর্শনী হতে যাচ্ছে।

হ্যাঁ, এক বছর পর এই নাটকের প্রদর্শনী হচ্ছে। আজ শনিবার জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে মঞ্চস্থ হবে। ২০১৯ সালের নভেম্বর মাসে এই নাটকের প্রথম প্রদর্শনী হয়। করোনাভাইরাসের কারণে মাঝে প্রদর্শনী বন্ধ ছিল। খোয়াবনামা নাটকে কুলসুম চরিত্রে অভিনয় করছি।

বিজ্ঞাপন
আলাপন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন