default-image

পরপর দুই ঈদে আপনার ছবি মুক্তি পেল। ক্যারিয়ারের জন্য কতটা ইতিবাচক বলে মনে করছেন?

ঈদের মতো বড় উৎসবে সিনেমা মুক্তি দেওয়ার জন্য সবাই মুখিয়ে থাকেন। আমার ক্যারিয়ার মাত্র সাড়ে চার কি পাঁচ বছরের। সেখানে দ্বিতীয় ছবি ‘পোড়ামন ২’ ঈদে মুক্তি পেয়েছে। এরপর গত ঈদে ‘গলুই’ আর ‘শান’ একসঙ্গে, এবার ‘সাইকো’। এই স্বল্প সময়ে এত অর্জন আমার জন্য অনেক বড় ব্যাপার। এটা আমার ক্যারিয়ারের জন্য অনেকটাই ইতিবাচক। আশাজাগানিয়া। ভরসা পাচ্ছি।

default-image

‘গলুই’ যুক্তরাষ্ট্রেও মুক্তি পেয়েছে...

কিছু কিছু অনুভূতি আছে, ভাষায় প্রকাশ করা যায় না। বলতেও পারি না, কতটা ভালো লাগছে। আমি অনেক সৌভাগ্যবান। আমার কোনো সিনেমা যুক্তরাষ্ট্রে দেখাচ্ছে, সঙ্গে প্রশংসাও পাচ্ছে। বাংলাদেশের সিনেমা শুধু বাংলাদেশে সীমাবদ্ধ নয়, বাইরেও যাচ্ছে। বাইরের মানুষও দেখছেন। সব মিলিয়ে গর্ব হচ্ছে, আমাদের সিনেমা সবকিছুই করতে পারে।

default-image

ঈদে মুক্তি পাওয়া বাকি দুটি সিনেমা ‘পরাণ’ ও ‘দিন: দ্য ডে’ দেখেছেন?

ঈদে আমার সিনেমা যদি মুক্তি না পেত, তাহলে প্রথম বা দ্বিতীয় দিন সবার আগে সিনেমা দুটি দেখে ফেলতাম। নিজের সিনেমার প্রচারে বিভিন্ন হলে যেতে হচ্ছে। এসব কাজ গুছিয়ে এনে ছবি দুটি দেখার পরিকল্পনা আছে। কারণ, ইন্ডাস্ট্রিতে এখন খুব ভালো ভালো সিনেমা হচ্ছে, যা আমাদের সবার জন্যই ইতিবাচক দিক।

default-image

মুক্তি পাওয়া সিনেমাগুলো নিয়ে এ ঈদে কাদা–ছোড়াছুড়ি দেখা গেছে।

করোনাকালে সিনেমা ইন্ডাস্ট্রি মুখ থুবড়ে পড়েছিল। এখন অনেক ভালো সিনেমা হচ্ছে, মানুষ হলে আসছেন। এ সময় নিজেদের মধ্যে কাদা–ছোড়াছুড়ি মোটেও কাম্য নয়। আমার একটা দুঃখ, আমরা একই ইন্ডাস্ট্রির মানুষ একই ইন্ডাস্ট্রির অভিনেতা–অভিনেত্রী, তবু একজন আরেকজনকে কটাক্ষ করে কীভাবে কথা বলি। যিনি অন্যকে কটাক্ষ করছেন, সেটা করে যে তিনি বড় হচ্ছেন, তা কিন্তু নয়। দর্শক তাঁকেও ছোট করছেন। কেউ কোনো দিক থেকে বড় হচ্ছেন না। তা ছাড়া তিনটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে, এখন যদি তাঁর সিনেমা সফল হয়, তাহলে আমাদেরটাও হবে। এভাবে কাদা–ছোড়াছুড়ি উচিত নয় বলে আমি মনে করি। আমরা সিনেমা বানিয়েছি, তিনিও সিনেমা বানিয়েছেন। আমরা একে অপরকে উৎসাহ দেব, শুভকামনা জানাব। এভাবে একে অপরের পাশে দাঁড়ালে আমাদের ইন্ডাস্ট্রি অনেক দূর এগিয়ে যাবে।

default-image
আলাপন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন