বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

করোনা যেমন মানুষের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে, তেমনি নষ্ট করেছে মানুষের সম্পর্কও। দীর্ঘদিন চলাফেরায় বিধিনিষেধ থাকায় দেখা হয়নি প্রিয়জনদের সঙ্গে। কেট উইন্সলেটের বেলায় ঘটেছে তা–ই। ব্রিটিশ এই অভিনেত্রীর তাই প্রিয় বন্ধুর সঙ্গে দেখা হতে সময় লাগল তিন বছর।

default-image

‘আমার জীবনের অর্ধেক সময় ধরে তাঁকে চিনি। এটা এমন নয় যে আমি নিউইয়র্কে আছি অথবা সে লন্ডনে। আর আমাদের কোনো রাতের খাবার কিংবা কফির আসরে দেখা হয়ে গেল। আমরা নিজেদের দেশ থেকে বেরোতে পারছিলাম না। কোভিডের কারণে আমরা একে অপরকে খুব মিস করেছি।’ বলেন কেট উইন্সলেট। তিনি আরও বলেন, লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও তাঁর বন্ধু। খুবই কাছের বন্ধু।

আসলেই কেটের কাছে লিও বেশ ভালো বন্ধু। সেই বন্ধুত্ব শুরু হয়েছিল সেই ‘টাইটানিক’–এর শুটিংয়ের সময়ে। এর আগে এক সাক্ষাৎকারে এ ব্যাপারে বলেছিলেন কেট। মার্কিন গণমাধ্যম পিপলকে তিনি বলেন, ‘ও খুবই খাঁটি ও দায়িত্বশীল মানুষ। ও আমার দারুণ বন্ধু। সব সময় বন্ধু হিসেবে ছিল। শুধু আমার কাছেই দারুণ বন্ধু নয়, প্রত্যেকেই ওকে ঘিরে থাকত। যখন আমরা ‘টাইটানিক’ ছবিতে কাজ করি, সেই সময়ের অনেকেই এখনো তাঁর বন্ধু হিসেবেই আছে।’

default-image

লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিওকে দেখা যাচ্ছে ‘ডোন্ট লুক আপ’ ছবিতে। সেই ছবিতে তিনি একজন বিজ্ঞানীর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন। আর কেট উইন্সলেটকে দেখা যাবে ‘টাইটানিক’ নির্মাতা জেমস ক্যামেরনের ‘অ্যাভাটার টু’ ছবিতে।

হলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন