পঞ্চমবারের মতো বিয়ে করলেন হলিউড অভিনেতা নিকোলাস কেইজ। ‘ঘোস্ট রাইডার’খ্যাত ৫৭ বছর বয়সী এই অভিনেতার স্ত্রী রিকো শিবাতার বয়স ২৬। এদিকে নিকোলাসের বড় ছেলে ওয়েস্টনের বয়স ৩০। নিজের চেয়ে ৩১ বছরের ছোট মেয়েকে বিয়ের কথা জানিয়েছেন অভিনেতা নিজেই। পিপল ম্যাগাজিনকে বিয়ের কথা জানিয়ে বলেছেন, ‘হ্যাঁ, যা শুনছেন, তা সত্যি। আমরা বিয়ে করেছি, আর আমরা সত্যিই সুখী।’ বিয়ের আগে এক বছর প্রেম করেছেন নিকোলাস ও রিকো।

default-image

বিয়ের খবরটি প্রায় এক মাস গোপন রেখেছিলেন। ১৬ ফেব্রুয়ারি বিয়ে লোকচক্ষুর আড়ালে ছোট পরিসরে পরিবার আর কাছের কিছু বন্ধুর উপস্থিতিতে বিয়ে করেছেন এই জুটি। এদিন নিকোলাসের বাবার জন্মদিন। তাঁকে শ্রদ্ধা জানাতে বিয়ের জন্য দিনটি বেছে নেন এই নবদম্পতি। ক্যাথলিক ও জাপানি—দুই রীতিতেই বিয়ে হয়েছে। বিয়ের দিন কেইজের পরনে ছিল মার্কিন ফ্যাশন ডিজাইনার টম ফোর্ডের নকশা করা ‘টাক্সিডো’। আর জাপানের ঐতিহ্যবাহী বিয়ের পোশাক কিমোনো পরে বউ সেজেছিলেন শিবাতা। লাস ভেগাসের ওয়েন হোটেলে বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অভিনেতার সাবেক স্ত্রী অ্যালিস কিম ও তাঁদের ১৫ বছর বয়সী ছেলে কাল এল। বিচ্ছেদের পরেও বন্ধু তাঁরা।

default-image
বিজ্ঞাপন

নিকোলাসের প্রথম স্ত্রী মার্কিন অভিনেত্রী প্যাটরিসিয়া অর্কেট। ১৯৯৫ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত সংসার করেন তাঁরা। ২০০২ সালে বিয়ে করেন এলভিস প্রিসলির কন্যা, মার্কিন সংগীত তারকা ও গীতিকার লিসা মারি প্রিসলিকে। ২০০৪ সালে সেই বিয়ে ভাঙার পর নিকোলাস বিয়ে করেন এরিস কিমকে। সেই বিয়ে টিকেছিল পরবর্তী এক যুগ। এটিই নিকোলাসের সবচেয়ে দীর্ঘ সময় বিবাহিত সম্পর্কে থাকা। অবশেষে ২০১৬ সালে বিচ্ছেদ হয় তাঁদের। ২০১৯ সালের মার্চ মাসে এরিকা কুকির সঙ্গে বিবাহবন্ধনে জড়িয়েছিলেন নিকোলাস। তবে সেই বিয়ে টিকেছিল মাত্র চার দিন। চার দিন পরেই তাঁরা আলাদা থাকা শুরু করেন। দুই মাস আলাদা থাকার পর আনুষ্ঠানিকভাবে বিচ্ছেদ ঘটে।

default-image
হলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন