default-image

হলিউড তারকা স্কারলেট ইয়োহানসন অভিনীত সুপারহিরোভিত্তিক ছবি ‘ব্ল্যাক উইডো’র মুক্তি আবার পেছাচ্ছে। তবে আশার কথা হলো ঘরের টিভি, মনিটর বা ফোনে নয়, প্রেক্ষাগৃহেই দেখা যাবে ছবিটি। বিশাল বাজেটের এ ছবি স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্মে দেখাতে চাইছেন না খোদ বিনিয়োগকারীরাই।
ডিজনির প্রধান নির্বাহী বব চ্যাপেকেরও ইচ্ছা, ‘ব্ল্যাক উইডো’ বিশ্বজুড়ে প্রেক্ষাগৃহেই মুক্তি পাক। গত বৃহস্পতিবার প্রযোজকদের এক সভায় তিনি জানিয়েছেন, মার্ভেল স্টুডিওর এই ছবিকে তাঁরা স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম ডিজনিপ্লাসে চালাতে চান না। তিনি বলেন, ‘আমরা এখনো ছবিটাকে হলে মুক্তি দেওয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। খুব সতর্কতার সঙ্গে ছবিটার মুক্তি নিয়ে ভাবছি।’

বিজ্ঞাপন

‘ব্ল্যাক উইডো’তে স্কারলেটকে দেখা যাবে নাতাশা রোমানফ চরিত্রে। ২০২০ সালের মে মাসে ছবিটি মুক্তির দিন ধার্য করা হয়েছিল। কিন্তু করোনা মহামারির কারণে নির্ধারিত তারিখে ছবিটি মুক্তি দেওয়া সম্ভব হয়নি। ছবি মুক্তির পরবর্তী তারিখ ঠিক করা হয়েছে চলতি বছরের ৭ মে।

default-image

মহামারির কারণে বড় বাজেটের বেশ কিছু ছবির মুক্তি নিয়ে আপস করতে হয়েছে ডিজনিকে। সেসবের মধ্যে ‘মুলান’ ছবিটিকে প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি দিতে না পেরে মুক্ত করা হয়েছে স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম ডিজনিপ্লাসে। এ ছাড়া অ্যানিমেশন ছবি ‘সোল’-এরও একই দশা হয়েছে। এ ছাড়া ‘রায়া অ্যান্ড দ্য লাস্ট ড্রাগন’ ছবিটি ডিজনিপ্লাসে দেখতে খরচ করতে হচ্ছে ৩০ ডলার।
বব বলেছেন, ‘আমাদের কিছু ছবি প্রেক্ষাগৃহে আর কিছু ছবি স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্মে দেখানোর পরিকল্পনা আছে। তবে তা নির্ভর করছে পরিস্থিতির ওপর। তবে কিছু সিদ্ধান্ত অবশ্য গ্রাহকের চাহিদার ওপর ভিত্তি করেও নেওয়া হবে।’

হলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন