অস্কারে লড়বে ‘দ্য ফাদার’, ‘নোম্যাডল্যান্ড’, ‘মিনারি’ ছবিগুলো।
অস্কারে লড়বে ‘দ্য ফাদার’, ‘নোম্যাডল্যান্ড’, ‘মিনারি’ ছবিগুলো।কোলাজ

‘নোম্যাডল্যান্ড’ নাকি ‘দ্য ফাদার’? বয়সের হিসেবে অশীতিপর অ্যান্থনি হপকিন্স পুরস্কার নেবেন? নাকি মরণোত্তর অস্কার জিতে যাবেন চ্যাডউইক বোজম্যান? আচ্ছা, ক্লোয়ি ঝাও কি জিততে পারবেন অস্কার? ফ্রান্সিস ম্যাকডোরম্যান্ড কি নারী হিসেবে অস্কারের আসরে কোনো ইতিহাস গড়বেন?
এমন অসংখ্য প্রশ্ন আছে। সেগুলোর উত্তর জানার জন্য আর কয়েক ঘণ্টার অপেক্ষা। এরপরই দেখা যাবে বিজয়ীদের হাস্যোজ্জ্বল ছবি। অস্কারের লালগালিচায় পাওয়া যাবে তারকাদের গ্ল্যামারের ছটা। যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেসে স্থানীয় সময় ২৫ এপ্রিল শুরু হবে অস্কারের আসর। করোনা মহামারি এখনো চলছে। তবে স্বস্তি হিসেবে আছে টিকা। আর তাতেই ভরসা করে আয়োজিত হচ্ছে এবারের অস্কার। এ নিয়ে হুলুস্থুলও কম নয়। যাঁরা এই আয়োজনে অংশ নিচ্ছেন, সবারই কমপক্ষে তিনবার করোনা শনাক্তের পরীক্ষা করা হবে।

default-image
বিজ্ঞাপন

তবে অস্কার নিয়ে আগের চেয়ে আলোচনা এবার কিছুটা কম। এর অন্যতম কারণ অবশ্যই কোভিড–১৯। এই ভাইরাসের কারণে অস্কারের জৌলুশও কমে গেছে। মহামারির সময়ে অবশ্য অন্যান্য পুরস্কার বিতরণী কিংবা চলচ্চিত্র উৎসব ঘিরেও মানুষের আগ্রহ কম দেখা গেছে। যেমন গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডে এ বছর দর্শকের সংখ্যা ছিল গত বছরের প্রায় অর্ধেক। অস্কারের ক্ষেত্রেও এর ব্যতিক্রম হওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ।
আবার করোনার কারণে বিশ্বব্যাপী চলচ্চিত্র ব্যবস্থায় জোর ধাক্কা লেগেছে। কমে গেছে ছবি মুক্তির সংখ্যা। বড় বাজেটের ছবিও খুব একটা মুক্তি পায়নি। বছরের অনেকাংশে বন্ধই ছিল সিনেমা হল। ভরসা ছিল শুধু অনলাইন স্ট্রিমিং। এর প্রভাবও দেখা যাচ্ছে অস্কারের মনোনয়নের তালিকায়। সেখানে যে নেটফ্লিক্সের মতো স্ট্রিমিং কিংবা ওটিটি প্ল্যাটফর্মেরই জয়জয়কার।
সবকিছুর পরও অস্কার বলে কথা! তাই প্রতিযোগীদের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই থাকছেই। সেরা চলচ্চিত্র হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে আছে ‘নোম্যাডল্যান্ড’। ছয়টি বিভাগে মনোনয়ন পেয়েছে এই ছবি। ছবির অন্যতম প্রযোজক ও প্রধান চরিত্র ফ্রান্সিস ম্যাকডোরম্যান্ড পেয়েছেন সেরা অভিনেত্রীর মনোনয়নও। অন্যদিকে পরিচালক হিসেবে ক্লোয়ি ঝাও আছেন সেরা হওয়ার রেসে।

default-image

‘নোম্যাডল্যান্ড’–এর কথা শুরুতেই বলার কারণ হলো, চলতি বছরের বিভিন্ন পুরস্কার বিতরণী মঞ্চে যে এই ছবিই বেশি আলোচিত। পুরস্কারও পেয়েছে ঢের। তবে সেরা হওয়ার দৌড়ে নেমেছে আরও অনেকে। সেরা চলচ্চিত্রের পুরস্কার পেতে উচ্চারিত হচ্ছে ‘মিনারি’, ‘দ্য ফাদার’ ও ‘প্রমিজিং ইয়াং ওম্যান’–এর নামও।
ওদিকে সেরা অভিনেতা হতে শক্ত অবস্থানে আছেন অ্যান্থনি হপকিন্স। ‘দ্য ফাদার’ ছবিতে অনবদ্য অভিনয় করে চমকে দিয়েছেন বয়সের কোটায় আশি পেরোনো হপকিন্স। তবে চ্যাডউইক বোজম্যানকে মরণোত্তর অস্কার দেওয়ার সুযোগ নষ্ট করা হবে না বলেও শোনা যাচ্ছে। সে ক্ষেত্রে মৃত্যুর পরে অভিনয়ের শ্রেষ্ঠ সম্মাননা পেতে পারেন ‘ব্ল্যাক প্যান্থার’। সমালোচকেরা বলছেন, ‘মা রেইনে’স ব্ল্যাক বটম’ ছবিটিতে নিজের বৈচিত্র্যময় অভিনয় দক্ষতার অভাবনীয় প্রদর্শনী হাজির করেছেন বোজম্যান। এ ছবিতে ‘ব্ল্যাক প্যান্থার’রূপী চ্যাডউইক হাজির হয়েছেন পুরো ভিন্ন রূপে। এর জন্য চলতি বছরের গোল্ডেন গ্লোবে সেরা অভিনেতার পুরস্কারও পেয়েছেন তিনি। তবে হ্যাঁ, অঘটন তো হতেই পারে! আর সেই সম্ভাবনায় ভোট পড়ছে ‘সাউন্ড অব মেটাল’ ছবির অভিনেতা রিজ আহমেদের বাক্সে।

default-image
বিজ্ঞাপন

সেরা অভিনেত্রীর মনোনয়নে প্রতিযোগিতা বেশি ‘নোম্যাডল্যান্ড’ ও ‘মা রেইনে’স ব্ল্যাক বটম’ ছবি দুটির মধ্যে। ‘নোম্যাডল্যান্ড’–এর ফ্রান্সিস ম্যাকডোরম্যান্ড মনোনয়ন পেয়েছেন এ বিভাগে। তবে এর আগেও অভিনয়ে দুটি অস্কার তিনি পেয়েছিলেন। সর্বশেষটি পেয়েছেন বছর কয়েক আগেই। বিষয়টি বিবেচনায় নিয়েই পূর্বাভাস দেওয়া হচ্ছে, ভায়োলা ডেভিসও পেতে পারেন এবারের অস্কার। ‘মা রেইনে’স ব্ল্যাক বটম’ ছবিতে চ্যাডউইক বোজম্যানের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে অভিনয় করেছেন ভায়োলা। এ বাদে আলোচনায় আছেন ক্যারি মুলিগান। ‘প্রমিজিং ইয়াং ওম্যান’-এ প্রতিশোধ নেওয়ার খেলায় যে লেটার মার্ক পেয়ে উতরে গেছেন তিনি।
এসব বিবেচনায় সেরা পরিচালক বিভাগটি অনেকটাই নিরুত্তাপ, প্রায় চলে গেছে ক্লোয়ি ঝাও–এর দখলে। চীনা এই পরিচালকই এবার অস্কার জিততে পারেন বলে জোর গুঞ্জন। ক্ষণগণনা বরং শুরু হোক এবার। আর তো মোটে কয়েক ঘণ্টা। এরপরই বিশ্বমঞ্চে ঝিলিক দেবে সোনালি ট্রফি।
তথ্যসূত্র: অস্কার ডট অরগ, বিবিসি, দ্য গার্ডিয়ান, হলিউড রিপোর্টার, দ্য নিউইয়র্ক টাইমস ও এবিসি নিউজ

default-image
হলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন