default-image

১৯৫০-এর দশকের প্রেক্ষাপটে নির্মিত ছবিটির গল্প অ্যালিস ও জ্যাক নামের সুখী এক যুগলকে নিয়ে। ক্যালিফোর্নিয়ায় দারুণ সময় কাটছিল তাদের। অ্যালিসের স্বামী জ্যাক কাজপাগল এক তরুণ, কোম্পানির গোপন এক প্রজেক্টের সঙ্গে যুক্ত সে। ঝামেলার সূত্রপাত হয় তখনই, যখন জানা যায়, কোম্পানি কোনো অস্বস্তিকর সত্য লুকাচ্ছে।
২০১৯ সালের আগস্টে ছবিটির স্বত্ব পেতে স্টুডিওগুলোর মধ্যে রীতিমতো যুদ্ধ লেগে গিয়েছিল। স্বত্ব পেতে নিলাম হয়। সে নিলামে জিতে ছবির স্বত্ব পায় নিউ লাই সিনেমা। ছবির অভিনয়শিল্পী চূড়ান্ত করতেও কম জল ঘোলা হয়নি।

default-image

২০২০ সালের এপ্রিলে ছবির পাত্রপাত্রী হিসেবে ফ্লোরেন্স পিউ, শিয়া লাবেউফ ও ক্রিস পাইনের নাম ঘোষণা হয়। পরে যুক্ত হন ডাকোটা জনসনও। এ ছাড়া ছবিতে অ্যালিসের চরিত্রের অভিনয় করার কথা ছিল পরিচালক অলিভিয়ার নিজেরই। কিন্তু পরে পরিচালক ঠিক করেন প্রধান দুই চরিত্র অ্যালিস ও জ্যাকের চরিত্রে কম বয়সী অভিনয়শিল্পীদের নেবেন। সে জন্য ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে অ্যালিসের চরিত্রে ফ্লোরেস পিউকে ঠিক করেন, যার আগে ছবিতে অ্যালিসের বন্ধু বানির চরিত্র করার কথা ছিল। আর বানির চরিত্র করেন অলিভিয়া। জ্যাক চরিত্রে শিয়া বাদ পড়েন, যুক্ত হন হ্যারি স্টাইল। এ ছাড়া ডাকোটা জনসনের স্থলাভিষিক্ত হন কিকি লেন। জনসন বাদ পরেন এই ছবির শুটিং তাঁর আরেক ছবি ‘দ্য লস্ট ডটার’-এর শুটিংয়ের সঙ্গে সাংঘর্ষিক হওয়ায়। ২০২০ সালের ২৬ অক্টোবর লস অ্যাঞ্জেলেসে শুরু হয় ছবির শুটিং, শেষ হয় গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে।

default-image

ভেনিসে মুক্তির পর প্রধান দুই চরিত্রে ফ্লোরেন্স পিউ ও হ্যারি স্টাইলের অভিনয় প্রশংসিত হয়েছে। বিশেষ করে সমালোচকেরা উল্লেখ করেছেন হ্যারির কথা। জনপ্রিয় এই ব্রিটিশ গায়ক কয়েক বছর ধরেই অভিনয়ে নিয়মিত। তবে ‘ডোন্ট ওরি ডারর্লিং’-এর প্রধান চরিত্রে অভিনয় হ্যারির অভিনয় ক্যারিয়ারে সবচেয়ে বড় অর্জন বলে রায় দিয়েছেন সমালোচকেরা।


তবে মুক্তির আগে ছবিটি উত্তাপ ছড়িয়েছে বাইরের অনেক ঘটনা নিয়ে। ভেনিসে প্রিমিয়ারের আগে প্রকাশ্যে আসে ফ্লোরেন্স পিউ ও পরিচালকের মধ্যে শুটিং চলার সময়ের ঝামেলা। এরপর খবর রটে, ভেনিসে প্রিমিয়ার শেষে ক্রিস পাইনকে থুতু ছিটিয়েছে হ্যারি স্টাইল। যদিও পরিচালক এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। এখন দেখার বিষয়, এত তর্কবিতর্কের পর বক্স অফিসে কেমন করে ছবিটি।

হলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন