সাধারণত ক্যাফে বলতে যা বুঝি, সিনেমাটি তা নিয়ে নয়, জানালেন রবি। নির্মাতার ভাষ্যে, ‘আমরা ঊনলৌকিক–পরবর্তী কাজে গল্প বলার ধরন ও বিষয়ে পরিবর্তন আনতে চাইছিলাম। স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্মে বহুল প্রচলিত সাসপেন্স-থ্রিলার, মার্ডার মিস্ট্রির বাইরে আর কী করা যায়, ভাবছিলাম।’

চলচ্চিত্রটি নিয়ে বিস্তারিত জানিয়ে পরিচালক আরও বলেন, ‘দৈনন্দিন প্রাত্যহিকতা, অস্তিত্ব সংকট, নর-নারীর সম্পর্ক, মানুষের মনস্তত্ত্ব, বাস্তববাদী শৈলী ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আমরা আলোচনা করি। সেই প্রেক্ষাপটে শিবু ভাই কিছু চরিত্রের খসড়া তৈরি করেন। তাতে লক্ষ করি, সব কটি চরিত্র ও তাদের কেন্দ্র করে তৈরি করা প্লটগুলো মূলত প্রেম, কামনা ও বাসনার অভিন্ন সুতায় গাঁথা।’

‘ক্যাফে ডিজায়ার’–এ অভিনয় করেছেন আজাদ আবুল কালাম, ইন্তেখাব দিনার, সোহেল মন্ডল, তমা মির্জা, খাইরুল বাশার, শ্যামল মাওলা, সানজিদা প্রীতি, সারিকা সাবরিন, আইশা খান, ফারহানা হামিদ, প্রিয়ন্তী উর্বী, প্রিয়াম অর্চি, বায়েজিদ হক জোয়ারদারসহ আরও অনেকে।

‘ঊনলৌকিক’–এর মতো ‘ক্যাফে ডিজায়ার’ সিনেমায়ও বহু অভিনয়শিল্পীকে দেখা যাবে, পরিচালক হিসেবে এতগুলো চরিত্র নিয়ে কাজের অভিজ্ঞতা নিয়ে রবি বলেন, ‘প্রথমত, গল্পে একটা নির্দিষ্ট চরিত্রকে আমি যেভাবে অনুধাবন করি, তা নিয়ে অভিনয়শিল্পীর সঙ্গে বিস্তারিত আলাপ করতে পছন্দ করি। আমার চিন্তাভাবনার সঙ্গে তারা কীভাবে সাড়া দিচ্ছে, বোঝার চেষ্টা করি। এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। এ জন্য সময় দিতে হয়। কারণ, এই আলাপ-আলোচনা থেকেই নির্দিষ্ট চরিত্র নিয়ে অভিনয়শিল্পীর সঙ্গে আমার একটা যৌথ বোঝাপড়া তৈরি হয়। বোঝাপড়াটা একবার হয়ে গেলে পরে সেটা বজায় রাখার কাজটা আর আমার একার থাকে না। চিত্রনাট্য পড়া, মহড়া ও শুটিংয়ের বিভিন্ন পর্যায়ে অভিনয়শিল্পীরা নিজেই সেটা করে থাকে। বাংলাদেশে অনেক গুণী অভিনয়শিল্পী আছে। তাদের সহযোগিতায় এই কর্মপ্রক্রিয়া অনেক সহজ ও আরামদায়ক হয়ে যায়।’

ওয়েব চলচ্চিত্রটি শিগগিরই ভিডিও স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম চরকিতে মুক্তি পাবে। দর্শকদের উদ্দেশে পরিচালক বলেন, ‘যাঁরা চলচ্চিত্র নির্মাণ করেন আর যাঁরা সেটা দেখেন, দুই পক্ষ ভিন্ন জগতের বাসিন্দা। চলচ্চিত্রটা তাদের মধ্যে এক যোগাযোগের মাধ্যম। ফলে প্রতিবার কিছু বানানোর পর আমি উদ্বেগে থাকি—দর্শক এটা কীভাবে নেবেন, কতটা যোগাযোগ তৈরি করা সম্ভব হবে। এবার দ্বিগুণ উদ্বেগে আছি। কেননা, এ ছবিতে আমরা গল্প বলা নিয়ে কিছু নিরীক্ষা করেছি।’

যৌথভাবে ‘ক্যাফে ডিজায়ার’–এর চিত্রনাট্য লিখেছেন শিবব্রত বর্মন ও রবিউল আলম রবি। সুমন সরকারের সিনোমাটোগ্রাফি, রাশিদ শরীফ শোয়েবের মিউজিক ও সালেহ সোবহান অনীমের সম্পাদনা চলচ্চিত্রটিতে অন্য রকম এক মাত্রা যোগ করবে।