চলচ্চিত্র দুটি দেখতে দর্শকের উপচে পড়া ভিড় ছিল সকাল থেকেই। বিশেষ করে দুপুরে ‘দুই দিনের দুনিয়া’ ওয়েব ফিল্মটি হলের সিঁড়িতে বসে, পেছনে দাঁড়িয়ে দর্শকেরা উপভোগ করেন। ‘আগে আসলে আগে পাবেন’ ভিত্তিতে ওয়েব ফিল্মটি বিনা মূল্যে দর্শকদের দেখানোর ব্যবস্থা করেছিল ‘চরকি’। চঞ্চল চৌধুরী অভিনীত ওয়েব ফিল্মটি দেখার জন্য বেলা একটার আগে থেকেই আসতে থাকেন দর্শক। দুইটার পর মিলনায়তনের দরজা খোলার কথা থাকলেও দর্শকের চাপে তার আগেই খুলে দেওয়া হয়।

দুইটার আগেই হলটি ‘হাউসফুল’ হয়ে যায়। এরপর দর্শকদের অনুরোধে বাইরে অপেক্ষারত সব দর্শককে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়। হলটি দর্শকে কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায়। এমনকি সিঁড়িতে বসেও অনেক দর্শক ছবিটি উপভোগ করেন। যাত্রাবাড়ী থেকে আসা  ফয়সাল আহমেদ বলেন, ‘এত দূর থেকে এসেছি শুধু বড় পর্দায় “দুই দুনের দুনিয়া” দেখতে। এমন কনটেন্ট যদি নিয়মিত চরকি বানায়, তাহলে বিদেশি ওটিটি প্ল্যাটফর্মগুলোকে খুব শিগগির টেক্কা দেবে চরকি।’

হলে উপস্থিত ছিলেন ওয়েব ফিল্মটির পরিচালক অনম বিশ্বাস, অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী, অভিনেত্রী মৌসুমী হামিদ ও ওয়েব ফিল্মটির ‘টেকা পাখি’ গানের কণ্ঠশিল্পী মাশা ইসলাম।

ছবিটি শুরুর আগে স্টেজে মাশা ‘টেকা পাখি’ গানটি গেয়ে শোনান। এর আগে সকালে ‘টান’ ছবিটি দেখানো হয়। তখনো হাউসফুল ছিল। সেই সময় পরিচালক রায়হান রাফি উপস্থিত ছিলেন।
প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে স্টলও বসিয়েছিল চরকি। সেখানে চরকির সাবস্ক্রিপশন সারপ্রাইজ গিফট ছিল। সকাল থেকেই সাবস্ক্রিপশন করতে স্টলে দর্শককে ভিড় করতে দেখা যায়। সেখানে দিনভর পাঠকদের ছবি তুলতেও দেখা যায়।