default-image

শনিবার ভোরে কক্সবাজার যাওয়ার পথে চট্টগ্রামের মিরসরাই এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন সংগীতাঙ্গনের দুই পরিচিত বাদ্যযন্ত্রী হানিফ আহমেদ ও পার্থ গুহ । এই  দুর্ঘটনায় মারাত্মক আহত হয়েছেন মাইক্রোবাসটিতে থাকা তরুণ গায়িকা বিউটি খান। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বর্তমানে আশঙ্কাজনক অবস্থায় আছেন এই কণ্ঠশিল্পী। কক্সবাজারগামী সেই গাড়িতে আরও ছিলেন গিটারবাদক রাহাত পাপ্পু আর কি-বোর্ডিস্ট নন্দন। তাঁরা সবাই মিলে একটি মাইক্রোবাসে করে কক্সবাজার যাচ্ছিলেন কনসার্ট করতে। তাঁদের মধ্যে বেজ গিটারিস্ট রাহাত দুর্ঘটনার বর্ণনা দিয়েছেন। এক ভিডিও বার্তায় তিনি জানালেন, গাড়ির একদম প্রথম সিটে ছিলেন তিনি।

default-image

তাঁর বর্ণনা ছিল এমন, ‘আমি ছিলাম একদম সামনে অর্থাৎ ড্রাইভারের পাশের সিটে।  হানিফ ভাই (হানিফ আহমেদ), পার্থদা (পার্থ গুহ) আর কণ্ঠশিল্পী বিউটি ছিলেন মাঝখানের সিটে। তাদের পেছনের সিটে ছিলেন গিটারিস্ট পাপ্পু আর কি-বোর্ডিস্ট নন্দন। আমরা চট্টগ্রামের দিকে যাচ্ছিলাম।

বিজ্ঞাপন
default-image

আমরা যেদিকে যাচ্ছিলাম, তার উল্টো দিকে যাওয়ার রাস্তা ডিভাইডার দিয়ে ভাগ করা ছিল। সেই উল্টো দিকের রাস্তায় একটি গাড়ি অ্যাকসিডেন্ট করে আইল্যাল্ডের ওপর দিয়ে ওঠে আমাদের গাড়ির ওপর এসে পড়ে। আমাদের গাড়িটা কয়েকবার উল্টে গিয়ে ধাক্কা খায় রাস্তার পাশের একটি ইলেকট্রিক লাইনের পিলারের সঙ্গে। গাড়ির ছাদের ভেতরের অংশটি একদম চেপে যায় হানিফ ভাই, পার্থ দা ও বিউটি যেখানে বসা ছিল ঠিক সেখানে। এদের সবার মাথায় প্রচণ্ড চাপ পড়ে। সিটে বসা অবস্থায় পার্থ দাকে (পার্থ গুহ) আমরা মৃত অবস্থায় পাই। বাকিদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠাই। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে যাওয়ার পর হানিফ ভাই মারা যান। বিউটি এখনো আশঙ্কামুক্ত নয়। আমাদের জন্য দোয়া করবেন।’

default-image

এদিকে প্রয়াত দুই শিল্পীর মরদেহ যাবতীয় আনুষ্ঠানিকতা শেষে চট্টগ্রাম থেকে আনা হয়েছে।পার্থ গুহর মরদেহ কুমিল্লা শহরে নেওয়া হয়। সেখানে ঠাকুরপাড়া মহাশ্মশানে তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হয়।। শিল্পী হানিফ আহমেদের মরদেহ ইতিমধ্যে ঢাকায় পৌঁছেছে। বাদ এশা রামপুরা ওয়াপদা রোড পাওয়ার হাউসের সামনে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।

গান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন