বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

অবসকিউর ব্যান্ডের সাঈদ হাসান টিপুর গানের শিরোনাম ‘চলো না যাই ফিরে’। গানটিতে তাঁর সহশিল্পী শাওন মাহমুদ। কণ্ঠশিল্পী সুচিতা নাহিদের কথায় গানটি সুর করেছেন সাজ্জাদ কবির। টিপু বলেন, ‘রোজার মধ্যে ছিলাম দেশের বাইরে। দেশে ফিরতেই গানটা রেডি হয়ে যায়। প্রকাশ করা যায় কখন ভাবতেই মনে হলো, কাছাকাছি সময়ে চাঁদরাত আছে, এটিই হতে পারে একটা সুন্দর সময়। অনেক দিন চাঁদরাতে গান প্রকাশ করা হয়নি। হিসাব করলে তো সাত-আট বছর হয়ে যাবে। তাই সুযোগটা মিস করতে চাইনি।’ কথায় কথায় টিপু বলেন, ‘এখন পর্যন্ত সবার কাছ থেকে গানটা নিয়ে ভালো প্রতিক্রিয়া পাচ্ছি। ইচ্ছা আছে গানগুলো অ্যালবাম আকারে প্রকাশ করার।’ চাঁদরাতে নব্বইয়ের দশকের অন্য ব্যান্ড সংগীতশিল্পীদের গান প্রকাশের বিষয়টি ইতিবাচকভাবে দেখছেন টিপু। তিনি বলেন, ‘আমরা তো চাইছি গানবাজনার জোয়ারটা ফিরে আসুক। এভাবে গান প্রকাশ হতে থাকলে জোয়ারটা ফিরতে বেশি সময় লাগবে না।’

default-image

কয়েক বছর ধরে সপরিবার যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে বাস করছেন প্রমিথিউস ব্যান্ডের অন্যতম সদস্য বিপ্লব। কাজের ফাঁকে সুযোগ পেলে নতুন গান করেন তিনি। এবার চাঁদরাতে তিনি প্রকাশ করলেন নতুন গান। ‘জেটল্যাগ ভালোবাসা’ শিরোনামের এই গান নিয়ে তিনি বলেন, ‘একটা সময় চাঁদরাত মানে অ্যালবাম, নতুন গান। শ্রোতারাও অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করতেন। আমরাও সুন্দর সুন্দর গান করার কাজে ব্যস্ত সময় পার করতাম। এবারের গান প্রকাশের ক্ষেত্রে সাত-আট বছর আগের সেই দিনগুলোতে ফিরে গিয়েছিলাম।’

default-image

বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন জায়গায় জেটল্যাগ ভালোবাসা গানের শুটিং হয়েছে। বিপ্লব বলেন, ‘আমার দীর্ঘ মিউজিক ক্যারিয়ারে দ্বৈত গান খুব বেশি গাইনি। তাই একটি দ্বৈত গানের পরিকল্পনা বেশ কিছুদিন ধরেই করছিলাম। দ্বৈত কণ্ঠের সেই গান আমার সঙ্গে কে গাইবে, তা নিয়েও ভাবছিলাম। এরপর কথা বলি তানজিনা রুমার সঙ্গে, তার সম্মতিও পেলাম। সে-ও ভীষণ খুশি হলো। তারপর গানটার কাজও এগিয়ে গেল।’
জেটল্যাগ ভালোবাসা শিরোনামের এই গানের রেকর্ডিং হয়েছে নিউইয়র্কের আরএমডি স্টুডিওতে। কথা, সুর ও সংগীত পরিচালনা করেছেন বিপ্লব। গান প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, ‘সবার কাছ থেকে অসাধারণ প্রতিক্রিয়া পাচ্ছি। আগে তো চিঠি লিখে ভক্ত-শ্রোতারা নানা রকম প্রতিক্রিয়া জানাত। এখন ফেসবুক ও হোয়াটসঅ্যাপে ভালো লাগার কথা জানাচ্ছে।’ বিপ্লবের এই গান পবিত্র ঈদুল ফিতরের ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘আনন্দমেলা’য় দেখানো হয়েছে।

গান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন