default-image

পপশিল্পী লেডি গাগার প্রেমিকের সংখ্যা নেহাত কম নয়। তাঁদের ভেতর গাগার ট্যালেন্ট এজেন্ট ক্রিশ্চিয়ান ক্যারিনোর সঙ্গে বাগদানও হয়েছিল। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে এক পুরস্কার বিতরণীর লাল গালিচায় গাগার ব্যালেরিনা গাউনের সঙ্গে অনামিকায় ঝলমল করে উঠেছিল একটা বড় হিরের আংটি। সেটি লুকানোর কোনো চেষ্টাই করেননি তিনি, বরং আংটিটি দেখিয়ে পোজ দিয়েছিলেন। সংবাদ সম্মেলনে এসে বলেছিলেন, ‘ভালোবাসলে সেই ভালোবাসা প্রকাশ করতে দোষ কোথায়?’ যদিও টেকেনি সে সম্পর্ক, মন ভেঙে যায় গাগার। খুলে ফেলে দেন সেই আংটি।

বিজ্ঞাপন

২০১৯ সালে ‘আ স্টার ইজ বর্ন’ সিনেমায় অভিনয় করতে গিয়ে তুমুল প্রেম করেন গাগা আর ব্রাডলি কুপার। তখন থেকেই সংবাদমাধ্যমে সেই প্রেম নিয়ে কানাঘুষা চলছিল। অস্কারের মঞ্চে সেই প্রেম চোখ এড়ায়নি কারও। চোখ এড়ায়নি কুপারের প্রেমিকা রাশিয়ান মডেল ইরিনা শায়েকেরও। কুপারের আগে ইরিনা সাত বছর প্রেম করেছেন ফুটবল তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর সঙ্গে। ইরিনা সে সময় শক্ত হাতে সামলেছেন সেই টালমাটাল অবস্থা। সবার আগে ইনস্টাগ্রামে আনফলো করেছেন গাগাকে। তারপর প্রেমিকের হাত ধরে জানিয়েছেন, তাঁরা একসঙ্গেই আছেন। তাঁদের মধ্যে নেই লেডি গাগা বলে কেউ। অবস্থা বুঝে গাগাও নিজের রাস্তা খুঁজে নিয়েছেন।

default-image

তারপরই জানুয়ারির শীতে লকডাউনের বিধিনিষেধ ভেঙে ইনস্টাগ্রামে দেখা যায় মিয়ামি বিচে গাগার নয়া প্রেমিকের সঙ্গে অন্তরঙ্গ ছবি। প্রেমিক পেশায় ব্যবসায়ী আর পার্কার গ্রুপের একটা বড় প্রকল্পের ব্যবস্থাপক। সেই প্রেমিকই এবার গাগাকে জন্মদিনে খুশি করেছেন বিশাল একতোড়া ফুল পাঠিয়ে।

৩৫তম জন্মদিনে ইনস্টাগ্রামে সেই ফুলের ছবি পোস্ট করে অস্কারজয়ী এই গায়িকা আর নায়িকা লিখেছেন, ‘প্রেমিক তো রোমের সব গোলাপ পাঠিয়ে দিয়েছে। তোমাকে ভালোবাসি প্রিয়। আমি, তুমি আর আমাদের পোষা প্রাণী—এই আমার পরিবার। তুমি কবে বাড়ি আসবে, বলো তো? আর ভালো লাগছে না।’

বিজ্ঞাপন
গান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন