default-image

রাজধানী ঢাকার গল্প ও ঐতিহ্য অশেষ। এ শহর নাকি কাউকে অভুক্ত রাখে না। হয়তো এ রকম এক বোধ নিয়ে রাজধানী ভরে উঠেছে কোটি কোটি মানুষে। ৪০০ বছরের পুরোনো এই শহরের নানা সমস্যা, তবু ঢাকার প্রতি মানুষের ভালোবাসা সীমাহীন। দেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে তার রাজধানীর প্রতি ভালোবাসা জানিয়ে জলের গান বেঁধেছে ভালোবাসার গান ‘ঢাকানামা’। প্রথম আলোর ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত হয়েছে গানটি।

বিজ্ঞাপন
default-image

‘ঢাকানামা’য় টুকে রাখা হয়েছে ঐতিহ্যবাহী ঢাকার নানা অনুষঙ্গ। বুড়িগঙ্গার তীর, রিকশা, চিকামারা দেয়াল, ঢাকাই শাড়ির সঙ্গে এসেছে মশারির কথাও। আছে পোস্টার, বিলবোর্ড আর এলোমেলো অলিগলির কথাও। ‘ঢাকা’ শব্দটা শুনলেই আপনার কেমন অনুভূতি হয়? এ রকম একটা ফেসবুক পোস্টের মন্তব্যের ঘরেই এ গান লিখে ফেলেছিলেন জলের গানের শিল্পী রাহুল আনন্দ। তিনি জানান, কাওয়ালি ঢাকার ঐতিহ্য। এ কারণে গানটিকে সুরও করা হয়েছে কাওয়ালি ঘরানায়। তিনি বলেন, ‘কাওয়ালি ঢাকার ঐতিহ্য। তাই কাওয়ালির সুরে ঢাকানামার সুর করা হয়েছে। এই গানের কথায় ঐতিহ্য আছে, সমকালও আছে।’ গানটিতে কণ্ঠ দেওয়া জলের গানের শিল্পী মল্লিক ঐশ্বর্য জানালেন, চটজলদিই গানটির সুর করে সেলফি ভিডিও করা হয়। তিনি বলেন, ‘এই গানে মানুষ এতটা সাড়া দেবে, সেটা ভাবতেই পারিনি।’

default-image

আজ শনিবার কক্সবাজারে একটি কনসার্টে গান করবে জলের গান। সেটি শেষ করে ঢাকায় ফিরে কদিন পর আরও একটি কনসার্টে অংশ নেবে তারা। তবে অন্যান্য বছরের তুলনায় করোনার কারণে এ বছর কনসার্ট কম। শ্রোতাদের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ অনেকটাই কমে গেছে দলটির। শীত মৌসুমে আগে বিরামহীনভাবে গানের অনুষ্ঠানে অংশ নিতে হতো তাদের। রাহুল বলেন, ‘কনসার্টে দর্শক-শ্রোতাদের মুখে থাকে মাস্ক। তাঁরা হাসেন না, একসঙ্গে গান করেন না। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার প্রয়োজন হয়। সতর্ক থাকতে হয়, হাত যেন মুখ থেকে দূরে থাকে। এভাবে গান শোনার আনন্দ পূর্ণ হয় না। আমরা আসলে অপেক্ষা করছি, কবে পৃথিবী সুন্দর হবে, সবাই হাসবে।’

নতুন গান বাঁধছে জলের গান। শিগগিরই আরও বেশ কিছু ব্যতিক্রম ঘরানার গান উপহার দেবে দলটি। গতকাল শুক্রবার স্টুডিও থেকে শিল্পী রাহুল আনন্দ জানান, এ বছর ঢাকা নিয়ে আরও কিছু গান করবেন তাঁরা। তিনি বলেন, ‘দেশের সুবর্ণজয়ন্তীতে রাজধানীরও সুবর্ণজয়ন্তী। এ রকম এক শুভক্ষণে এ গান দিয়ে ঢাকার প্রতি ভালোবাসা জানালাম আমরা। এ বছর এ রকম আরও কিছু গান আমরা দেশবাসীকে উপহার দেব।’

জলের গানের সদস্যরা হলেন রাহুল আনন্দ, রানা সারওয়ার, এবিএস জেম, ডিএইচ শুভ, মল্লিক ঐশ্বর্য, দ্বীপ রায়, মো. মাসুম, গোপী দেবনাথ। ‘ঢাকানামা’ গানে হারমোনিয়াম বাজিয়েছেন দলটির বন্ধুসদস্য রবিন।

বিজ্ঞাপন
গান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন