সড়ক দুর্ঘটনায় আহত তরুণ গায়িকা বিউটি খানের সর্বশেষ অবস্থা জানতে সন্ধ্যা ছয়টায় ফোন করা হয় তাঁর স্বামীর নম্বরে। ফোন ধরতেই ও পাশ থেকে শোনা যাচ্ছিল অ্যাম্বুলেন্সের সাইরেন। জানতে চাইলাম, ‘কোথায় আপনারা?’ বললেন, ‘আমরা এখন মিরসরাই পার হচ্ছি। ঢাকার পথে।’ কথাগুলো গায়িকা বিউটি খানের স্বামী রাজীব খানের।
জানা গেল, সড়ক দুর্ঘটনায় আহত তরুণ সঙ্গীতশিল্পী বিউটি খানকে অ্যাম্বুলেন্সে করে ঢাকায় আনা হচ্ছে। রাজীব জানান, ঢাকার একটি হাসপাতালে তাঁকে ভর্তি করা হবে।

default-image

রাজীব বলেন, ‘বিউটির ডান পা, ডান হাত ও বাম কাঁধে ফ্র্যাকচার হয়েছে। মুখে খুব আঘাত পেয়েছেন। ওপরের ঠোঁট কেটে গেছে। চারটা দাঁতও ভেঙে গেছে। চট্টগ্রাম থেকে চিকিৎসকেরা বলেছেন, বিউটির হাত–পা আর কাঁধে দ্রুত অস্ত্রোপচার করতে হবে। তাই ঢাকায় নিয়ে আসছি।’

default-image
বিজ্ঞাপন

ব্যথার কী অবস্থা জানতে চাইলে রাজীব বলেন, ‘আপাতত ব্যথা হচ্ছে না। ঢাকায় আসার পথে এখন পর্যন্ত অন্য কোনো সমস্যার কথাও জানায়নি। কিছুক্ষণ পরপর ঘুমাচ্ছে।’ রাজীব এ–ও বলেন, ওর নানু চার/পাঁচ দিন আগে দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন। তাঁরও বাম পাশের হাড় ভেঙে গেছে। আজ রোববার তাঁর অস্ত্রোপচার। তিনি যাঁর তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন, বিউটিরও তাঁর তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা হবে।
টঙ্গীর চেরাগ আলী এলাকায় স্বামীকে নিয়ে থাকেন তরুণ গায়িকা বিউটি খান। সাত বছর আগে রাজীব খানের সঙ্গে তিনি বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন।

default-image

গতকাল শনিবার ভোরে কক্সবাজারে যাওয়ার পথে চট্টগ্রামের মিরসরাই এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান সঙ্গীতাঙ্গনের দুই পরিচিত বাদ্যযন্ত্রী হানিফ আহমেদ ও পার্থ গুহ। এই দুর্ঘটনায় মারাত্মক আহত হন মাইক্রোবাসটিতে থাকা তরুণ গায়িকা বিউটি খান। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা দেওয়া হয়। কক্সবাজারগামী সেই গাড়িতে আরও ছিলেন গিটারবাদক রাহাত পাপ্পু আর কি-বোর্ডিস্ট নন্দন। তাঁরা সবাই মিলে একটি মাইক্রোবাসে করে কক্সবাজারে যাচ্ছিলেন কনসার্ট করতে।

বিজ্ঞাপন
গান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন