বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

গানটি লিখেছেন ঢাকার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ কেশব রায় চৌধুরী আর সুর ও সংগীতায়োজন করেছেন কিশোর দাস। গানটি প্রসঙ্গে সংগীতশিল্পী ও গানছবি এন্টারটেইনমেন্টের কর্ণধার কুমার বিশ্বজিৎ বলেন, ‘কলকাতায় দুর্গাপূজা নিয়ে প্রতিবছর অনেক গান প্রকাশিত হয়। সে তুলনায় বাংলাদেশে তেমন একটা হয় না। এবার আমরা দুই দেশের শিল্পী মিলে পূজার একটি গান গাইলাম। পূজার সময় আমরা যে ধরনের তাল-লয়ের গান উপভোগ করে থাকি, এই গানের ক্ষেত্রে সে বিষয়ে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। ঢাক, শঙ্খ, কাঁসা আর সানাইয়ের সমন্বয়ে সংগীতায়োজনটি করা হয়েছে। আশা করছি, গানটি শ্রোতাদের ভালো লাগবে।’

default-image

গানটি প্রসঙ্গে কুমার বিশ্বজিৎ এ–ও বলেন, ‘কিশোর দাস বরাবরই ভালো সুর ও সংগীতায়োজন করে থাকেন। এই গানেরও চমৎকার সুরারোপ করেছেন। আর গানটির চিত্রায়ণে দুর্গাপূজার যে চিরায়ত প্রথা বা ঐতিহ্য রয়েছে, সেটিকে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। আমার বিশ্বাস, দুই বাংলায় দুর্গাপূজার উৎসবেই গানটির সঙ্গে সবাই একাত্ম হতে পারবেন।’

default-image

গানটি প্রসঙ্গে কলকাতার কণ্ঠশিল্পী রূপঙ্কর বাগচী বলেন, ‘সুন্দর কথামালা ও চমৎকার সুরে দুই বাংলার শিল্পীদের সমন্বয়ে যে গান তৈরি হয়েছে, তা শ্রোতাদের মন কাড়বে বলে আমি নিশ্চিত।’ গানটির ভিডিও তৈরি করেছেন চন্দন রায় চৌধুরী।

গান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন