বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সমরজিৎ রায়ের এবার দুটি পূজার গান প্রকাশিত হয়েছে। ‘শরৎ প্রভাতে’ ও ‘পুজোর ঢাক’ শিরোনামের দুটি গানের সংগীত পরিচালকও তিনি। একটি গানে তাঁর সহশিল্পী প্রিয়াংকা গোপ ও অন্যটিতে পুণম প্রিয়াম। বাংলাদেশে পূজার গানের সংখ্যা বাড়ছে বলে মনে করছেন সমরজিৎ রায়।

default-image

তিনি বলেন, ‘আমাদের দেশে অনেক গানই পূজার তাৎপর্য বহন করে না। অধিকাংশ গানই মানুষকে শুধু বিনোদিত করার জন্য তৈরি হচ্ছে। পুরোনো ভারতীয় গানে যেভাবে পূজার ব্যাপারগুলো আসে, সেই অর্থে বাংলাদেশের অনেক গানেই ব্যাপারগুলো অনুপস্থিত। তবে প্রিয়াংকা আর আমার আগমনী গান “শরৎ প্রভাতে” আগমনীর পুরো ব্যাপারটা উঠে এসেছে।’
শারদীয় দুর্গাপূজায় ভিন্নধর্মী একটি আয়োজন নিয়ে এসেছেন সন্দীপন, সুমন কল্যাণ ও মৌমিতা। সন্দীপন বলেন, ‘পূজায় সবাই যেখানে গান প্রকাশ করে, সেখানে আমরা যন্ত্রানুষঙ্গ দিয়ে ভিন্নধর্মী কিছু করার কথা ভেবেছি।

default-image

“জয় মা” শিরোনামের এই ইনস্ট্রুমেন্টাল মিউজিকটি প্রকাশ করেছে জি সিরিজ। এটির সার্বিক পরিকল্পনা ও সংগীতায়োজন করেছেন সুমন কল্যাণ।’

সংগীতশিল্পী প্রিয়াংকা গোপ মনে করেন, শিল্পীদের পক্ষ থেকে এই উৎসবের তাৎপর্য সর্বস্তরের মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা রয়েছে।

default-image

কেননা, পাঁচ বছর আগে এভাবে পূজায় মৌলিক গান প্রকাশের প্রবণতা ছিল না। কেবল রেডিও এবং টেলিভিশনে গান প্রচারিত হতো। এখন বিভিন্ন মাধ্যমে মৌলিক গান প্রচার ও প্রকাশের সুযোগ তৈরি হয়েছে। সামনের দিনগুলোয় শিল্পীরা এই উৎসবের মাধ্যমে পূজার তাৎপর্যময় দিকগুলো মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে আরও তৎপর হবে বলে আশা করছেন তিনি।

default-image

পূজায় এবার একটি মাত্র গান গেয়েছেন কিশোর দাস। কেশব রায় চৌধুরীর লেখা এই গানের সুর ও সংগীতায়োজনও করেছেন তিনি। কিশোর বলেন, ‘ধর্মীয় উৎসবে গান করার ক্ষেত্রে অন্তর্নিহিত তাৎপর্য উপলব্ধি করা উচিত। তবে সব সময় গানে তা আমাদের তুলে ধরা হয়ে ওঠে না। আমরা এখনো এভাবে ভাবতে পারিনি। উদ্যাপনের বিষয়টিকেই বেশি প্রাধান্য দিয়ে থাকি আমরা। উৎসবটাই আমাদের কাছে মুখ্য হয়ে ধরা দেয়।’ কিশোর জানালেন, গান তৈরি হওয়ার কারণে কিন্তু শঙ্খ, কাঁসা, পূজার ঘণ্টাসহ বিভিন্ন যন্ত্রানুষঙ্গ উঠে আসছে।

৯ বছরের সংগীতজীবনে এই প্রথম পূজার গান গাইলেন তরুণ সংগীতশিল্পী কর্নিয়া। ‘জয় দুর্গা মায়ের জয়’ শিরোনামের এই গানে আরও কণ্ঠ দিয়েছেন হৈমন্তী রক্ষিত, স্বপ্নিল সজীব ও বিপ্লব সাহা। গানটির ভিডিও চিত্রের উদ্যোক্তা বিপ্লব সাহা। কর্নিয়া বলেন, দারুণ একটা অভিজ্ঞতা হয়েছে। গানে উৎসবের ব্যাপারটা খুব চমৎকারভাবে ফুটে উঠেছে।

default-image

প্রকাশিত হয়েছে সিঁথি সাহার নতুন গান ‘গড়েছি মা’–এর ভিডিও। সিঁথি সাহা জানালেন, পূজার গান, উৎসবের গান, তাই একটু ভিন্নভাবে তাঁকে ভিডিওতে উপস্থাপন করা হয়েছে। সিঁথি বলেন, ‘গানের সঙ্গে আমাকে নাচতে হয়েছে। লোকেশনে নাচের ছেলেমেয়েদের কাছ থেকে অনুশীলন করেছি।’
সংগীতশিল্পী উত্তমকুমার রায় নিজের নতুন মৌলিক গান ‘জাগো মা’ প্রকাশ করেছেন গতকাল বুধবার। এ শিল্পী বলেন, করোনা পরিস্থিতির কথা চিন্তা করে এই গানে সচেতনতার কথা এনেছেন। গানের লাইনগুলোয় রয়েছে এমনই কথা, দেশ তথা পুরো দুনিয়া সংক্রমণমুক্ত হোক। গানে গানে সে প্রার্থনাই করা হয়েছে। সেই সঙ্গে শাঁখ-বাদ্যি, কাঁসর ঘণ্টা জুড়ে গানটিকে উৎসবমুখরও করা হয়েছে।
ধর্মীয় এই উৎসবের গান করার ক্ষেত্রে তাৎপর্যটা ভাবা উচিত বলে মনে করছেন কুমার বিশ্বজিৎ। কারণ, পূজার গানের একটা মাহাত্ম্য আছে বলে মনে করছেন এই শিল্পী। কুমার বিশ্বজিৎ বলেন, পূজার গান কেউ বুঝে করছেন, কেউ না বুঝে করছেন। এটা কিন্তু শুধু উৎসব নয়, এখানে জ্ঞান, বুদ্ধি, বিবেচনা ও উপলব্ধির বিষয় আছে। যা কিছুই করা হোক, জেনেবুঝেই করা উচিত। গান হিসেবে করলেও ধর্মীয় তাৎপর্য বুঝেই করা উচিত।

গান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন